সদ্য সংবাদ

পুরাতন সংবাদ: March 20th, 2019

স্বাধীনতা পদক পাচ্ছেন ড. খলীকুজ্জামান

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

 রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার ‘স্বাধীনতা পদক’ এ ভূষিত হয়েছেন প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ, গবেষক, লেখক ও সমাজ সংষ্কারক ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ। তিনি স্বাধীনতা পদক পেয়েছেন সমাজসেবা ও জনসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য। আগামী ২৫ মার্চ বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে তাঁরা “স্বাধীনতা পুরষ্কার- ২০১৯” গ্রহণ করবেন।

বরেণ্য অর্থনীতিবিদ, গবেষক, সমাজ ভাবনার অন্যতম ব্যক্তিত্ব কাজী খালিকুজ্জামানের রংতুলির জীবনবাদী আঁচড় ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে দেশ বিদেশের আনাচে কানাচে। তিনি ১৯৪৩ সালের ১২ মার্চ মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার পাঁচগাও এলাকার এক বনেদি মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম মৌলানা কাজী মুফজ্জল হোসেন ছিলেন একজন তুখোড় রাজনীতিবিদ ও শিক্ষাবিদ। তিনি ১৯৪৬ সালে নির্বাচিত এম এল এ ছিলেন। ড. খলীকুজ্জামানের মাতা বেগম মরহুম ছহিফা খাতুন ছিলেন একজন মহিয়ষী নারী। তদানিন্তন সময়ে শিক্ষা বিস্তারে তিনি ব্যাপক কাজ করে গেছেন।

পরিবেশের উপর তিনি যুগান্তকারী বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। এ পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির স্বর্ণপদক-২০১২, সমাজসেবায় একুশে পদক-২০০৯, ২০০৭ সালের শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার বিজয়ী ইন্টারগভর্নমেন্ট প্যানেল অব ক্লাইমেট চেঞ্জ এর সদস্য, ২০০৫ সালে মার্কেন্টাইল ব্যাংক পুরষ্কার।

পারিবারিক জীবনে ড. কাজী খলীকুজ্জামান অত্যন্ত সফল ও সুখী জীবনযাপন করছেন। তাঁর স্ত্রী ড. জাহেদা আহমদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপনা করছেন। তিনি লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। ড. জাহেদা বিভিন্ন গবেষনায় জড়িত রয়েছেন। তাঁর লেখার হাত ভারি চমৎকার। তাঁদের দুজন সন্তান রয়েছেন। একজন কাজী রুশদী আহমদ অপরজন কাজী উরফী আহমদ।

বড়লেখার দুই শিক্ষার্থীর কৃতিত্ব : শাবি’র মাস্টার্সে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট

বড়লেখা প্রতিনিধি::

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৯ সালের মাস্টার্স (ইংরেজি) ফাইনাল পরীক্ষায় যুগ্মভাবে ফার্স্টক্লাস ফার্স্ট হয়েছে বড়লেখার দুই মেধাবী ছাত্রী। এদের একজন সুমাইয়া ফেরদৌস ও অপরজন শারমিন বেগম। তারা দুইজনই সিলেট বিভাগের নারীশিক্ষা প্রসারের অন্যতম পিদ্যাপিট বড়লেখা নারীশিক্ষা একাডেমি ডিগ্রী কলেজের সাবেক ছাত্রী। কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী মেধাবী সুমাইয়া ও শারমিন উচ্চতর ডিগ্রী অর্জনে আগ্রহী।

সুমাইয়া ফেরদৌস বড়লেখা নারীশিক্ষা একাডেমি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ হারুন-উর-রশীদ ও সাবেক স্কুল শিক্ষিকা কবি লাইলি বেগমের মেয়ে। এ কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় সুমাইয়া জিপিএ-৫ অর্জন করে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিষয়ে বি.এ আনার্সে ভর্তি হয়। অনার্সের ফাইনাল পরীক্ষায় সে প্রথম শ্রেণীতে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে। এদিকে শারমিন বেগম উপজেলা সদরের ব্যবসায়ী সফিক উদ্দিন ও গৃহিনী আনোয়ারা বেগমের কনিষ্ট মেয়ে।

বড়লেখার মেধাবী এ দুই ছাত্রী ভবিষ্যতে শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত হতে আগ্রহী হলেও এই মুহূর্তে তারা চাকরীর কথা ভাবছে না। ডক্টরেট ডিগ্রীসহ ইংরেজির ওপর তারা উচ্চতর ডিগ্রী নিতে আগ্রহী।

দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অন্যতম একটি বিশ্ববিদ্যালয় শাবি থেকে মাস্টার্সে ঈর্ষনীয় ফলাফল অর্জন করায় কৃতী শিক্ষার্থী সুমাইয়া ও শারমিনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বড়লেখা নারীশিক্ষা একাডেমি ডিগ্রী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী।

মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের ৭ সদস্যবিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠিত

বেলাল তালুকদার, মৌলভীবাজারঃ

মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারণ পরিষদের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ ০৯ মার্চ শনিবার সকাল ১১টায়। মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও উপদেষ্টা সাংবাদিক শ. ই. সরকার জবলু’র সভাপতিত্বে ও দুরুদ আহমদের পরিচালনায় শহরের দিল্লী রেষ্টুরেন্টের হলরুমে অনুষ্ঠিত এ সাধারণ পরিষদের জরুরী সভায় বিগত কমিটির আয়-ব্যয়ের হিসাব, সংবিধান প্রনয়ন, নতুন কমিটি গঠন ও বিবিধ আলোচ্যসূচীর উপর ব্যাপক আলোচনা-পর্যালোচনা হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন- উপদেষ্টা ছালেহ আহমদ সেলিম, তাজুদুর রহমান, জিতু তালুকদার, আব্দুল হাকিম রাজ, মামুনুর রহমান চৌধুরী মসু, দুরুদ আহমদ, হারুনুর রশিদ, বেলাল তালুকদার, মেরাজ আলী, রুবেল রানা চৌধুরী, হুমায়ুন রহমান বাপ্পী, মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী, মামুনুর রশিদ তরফদার প্রমুখ। সাধারণ পরিষদের জরুরী সভায় আলোচ্যসূচীর উপর ব্যাপক আলোচনা-পর্যালোচনা শেষে মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে সংবিধান প্রনয়ন, বিগত কমিটির আয়-ব্যয়ের হিসাব নীরিক্ষা ও নতুন কমিটি নির্বাচনের জন্য সর্বসম্মতিক্রমে দুরুদ আহমদকে (দীপ্ত নিউজ) আহবায়ক ও তাজুদুর রহমানকে (ক্রাইম নিউজ বিডি) সদস্যসচিব করে তাৎক্ষণিকভাবে ৭ সদস্যবিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেই সাথে, সংবিধান প্রনয়ন, বিগত কমিটির আয়-ব্যয়ের হিসাব নীরিক্ষা ও সার্বিক সমন্বয়ের জন্য গঠন করা হয়েছে আহবায়ক কমিটির অধীন আরও ৩টি উপ-কমিটি। আহবায়ক কমিটির অন্যান্যরা হলেন- যুগ্ন আহবায়ক জিতু তালুকদার (ক্রাইম এক্সপ্রেস ডিডি) ও আব্দুল হাকিম রাজ (এমবি নিউজ এজেন্সী), সদস্য মামুনুর রহমান চৌধুরী মসু (এসএনএন২৪), বেলাল তালুকদার (ওপেন আই বিডি) ও হারুনুর রশিদ (আমার বার্তা)।

কমলকুঁড়ি পত্রিকা ১৪ মার্চ ২০১৯

12

Kamalgonj Pic

কমলগঞ্জে সুষ্ঠু নির্বাচনে প্রার্থী, ভোটার ও উপজেলাবাসীর সাথে কমলগঞ্জ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর মতবিনিমিয়

7
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
আসন্ন ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০১৯ অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় প্রার্থী, ভোটার ও উপজেলাবাসীর সাথে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কমলগঞ্জ থানার আয়োজনে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কমলগঞ্জ সরকারি গণ মহাবিদ্যালয় অডিটরিয়ামে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কমলগঞ্জ সরকারি গণমহা বিদ্যালয় অডিটরিয়ামে কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আরিফুর রহমান এর সভাপতিত্বে ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান এর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার মো. শাহ জালাল বিপিএম ও পিপিএম। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা নির্বাচন অফিসার ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মঞ্জুরুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনোয়ারুল হক।
সভায় মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার মো. শাহ জালাল বলেন, আগামী ১৮ মার্চ শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে কোন ধরণের বিশৃঙ্খলা ও অপপ্রচারকারীদের ছাড়া দেওয়া হবে না। অবাধ, সুষ্ঠ নির্বাচনের লক্ষে জেলার সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকবে। নির্বাচনে প্রার্থীর সাথে কোন পুলিশ সদস্যদের সক্ষতার প্রমান পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থী, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আহব্বান জানান। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মঞ্জুরুল আলম বলেন, আইন সবার জন্য সমান। যে কেউ আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে ভোটাররা যাতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিতে পারে সেজন্য সব ধরণের সহায়তা প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সুধীন দাস, কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মো. কামরুজ্জামান মিঞা উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান মৌলভীবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এর আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করেন। এছাড়াও প্রতিদ্বন্ধী স্বতন্ত্র পদে চেয়ারম্যান প্রার্থী ইমতিয়াজ আহমদ বুলবুল, হাতুড়ি প্রতীকের আব্দুল আহাদ মিনার, ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষক প্রতিনিধিরা বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ প্রদান করেন।