সদ্য সংবাদ

পুরাতন সংবাদ: May 2019

বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টি২০ সিরিজ

sports_cricket_sm_815600632_86349ক্রীড়া ডেস্ক:

আসন্ন বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টি২০ সিরিজে নতুন নিয়ম চালু করছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা আইসিসি। আগামী ৫ জুলাই প্রথম টি২০ ম্যাচটি নতুন নিয়মে হবে।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, টি২০ তেও যে কোনো নো-বলে ফ্রি হিট পাবেন ব্যাটসম্যান। এর আগে শুধুমাত্র বোলারের ওভারস্টেপিংয়ের (লাইন মিস) জন্য নো-বল পেতেন ব্যাটসম্যান।

শুক্রবার (২৭ জুন) বার্বাডোজে আইসিসির বার্ষিক সভায় নতুন এ নিয়মের কথা জানান আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন। এছাড়াও একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নতুন কয়েকটি নিয়ম চালু হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানরা এখন বোলারদের চেয়ে অনেক বেশি সুবিধা পান উল্লেখ করে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি ব্যাটিং পাওয়ার প্লে বাদ দেওয়ার সুপারিশ করে। প্রথম ১০ ওভারে পাওয়ার প্লের সময় বাধ্যতামূলক দুই জন ‘ক্লোজ ফিল্ডার’ রাখার নিয়ম বাদ দেওয়া হয়েছে। আর এখন থেকে শেষ ১০ ওভারে ত্রিশ গজের বাইরে সর্বোচ্চ পাঁচ জন ফিল্ডার রাখা যাবে। আগে যেখানে চারজন ফিল্ডার রাখা যেত। ফলে এখন থেকে প্রথম ১০ ওভারে সর্বোচ্চ দুই জন খেলোয়াড় ত্রিশ গজের বাইরে থাকতে পারবেন। পরের ৩০ ওভারে সর্বোচ্চ চার জন খেলোয়াড় এবং শেষ ১০ ওভারে সর্বোচ্চ পাঁচ জন ত্রিশ গজের বাইরে থাকতে পারবেন। এখন তাই প্রয়োজন আক্রমণাত্মক বা রক্ষণাত্মক ফিল্ডিং সাজাতে পারবেন অধিনায়ক।

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সব ‘নো’ বলেই এখন ফ্রি-হিট দেওয়া হবে। আগে কেবল পায়ের ‘নো’ বলে  ফ্রি-হিট দেওয়া হতো।

ঈদে বাবা-ছেলের ‘ডেস্টিনেশন’

4বিনোদন ডেস্ক :

জন্মের পর থেকেই দেখছেন বাবা-মা, লাইট-ক্যামেরা-এ্যাকশানে ব্যস্ত। এ সব দেখে দেখেই ছোট্ট ফারদিনের মাথায় চেপে বসে নির্মাতা হওয়ার নেশা।    নির্মাতা হিসেবে অভিষেক নাটকটি টিভি পর্দায় প্রচার হয়েছে আরও দুই বছর আগে। আসছে ঈদের জন্যও নির্মাণ করেছেন একটি টেলিফিল্ম।   ঢাকাই চলচ্চিত্রের তারকা দম্পতি ওমর সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদিন এহসান স্বাধীনের কথা বলছি। চ্যানেল আইয়ের জন্য তিনি নির্মাণ করেছেন ‘ডেস্টিনেশন’ নামের টেলিফিল্ম।  ঈদের ৫ম দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় টেলিফিল্মটি প্রচার হবে।   এতে অভিনয় করেছেন ওমর সানী, সুজানা ও শহীদুজ্জামান সেলিম। এর আগে ফারদিন ‘ব্ল্যাক এপার্ট’ নামের একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। যুক্ত আছেন মৌসুমী পরিচালিত ‘শূন্য হৃদয়’ চলচ্চিত্রটির সঙ্গেও।   ফারদিনের বাবা ওমর সানী  বলেন, ‘নির্মাতা হবে এই স্বপ্নটা ছোটবেলা থেকেই ফারদিনের। আমরাও তাকে স্বাধীনতা দেই।    ছোটবেলা থেকেই দেখেছি ক্যামেরার প্রতি এক ধরনের ঝোঁক রয়েছে। আমরাই চাই ফারদিন নির্মাতা হিসেবে নিজের পরিচয়ে পরিচিত হোক।’

প্রথমবার একসঙ্গে নাচলেন ফেরদৌস-জয়া

ferdus-joya-640বিনোদন ডেস্ক :: ঈদ উপলক্ষে নির্মিত টিভি অনুষ্ঠান ‘আনন্দমেলা’র একটি মিউজিক ভিডিওতে প্রথমবারের মতো নাচলেন ফেরদোস ও জয়া আহসান। ফেরদৌস ও জয়া অভিনীত ভিন্ন ভিন্ন চলচ্চিত্রের তিনটি গান নিয়ে করা হয়েছে কোলাজ। আর সেই কোলাজের সঙ্গে নাচলেন ফেরদৌস ও জয়া। শুধু তাই নয়, এবারই প্রথমবারের মতো একসঙ্গে কোনো টিভি অনুষ্ঠানে অংশ নিলেন তারা। মিউজিক ভিডিওর নির্দেশনা দিয়েছেন কৌশিক হোসেন। শিল্প নির্দেশনায় ছিলেন ফারজানা মুন্নি।
এর আগে ‌’গেরিলা’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেন ফোরদৌস ও জয়া আহসান।
২৮ জুন বিটিভির ড্রামা অডিটোরিয়ামে ভিডিওটির শ্যুটিং সম্পন্ন হয়েছে। এবারের ‘আনন্দমেলা’ উপস্থাপনা করছেন আবেদ খান। অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে ঈদের রাতে।

জুড়ীতে বিদেশি পিস্তল উদ্ধার

জুড়ী সংবাদদাতা ::

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার বাছিরপুর গ্রাম থেকে ছয় রাউন্ড গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করেছে পুলিশ। সম্প্রতি এক ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে পিস্তলটি লুট করা হয়েছিল।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) ভোরে গুলিসহ পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি গাজীপুরের টঙ্গী থানার এক পোশাক ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে ডাকাতরা লাইসেন্সকৃত পিস্তল লুট করে। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ী টঙ্গী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এর ভিত্তিতে কয়েকজন ডাকাতকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ভোরে জুড়ী ও টঙ্গী থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে বাছিরপুর গ্রামের আইয়ুব আলীর পুকুর পাড় থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় গুলিসহ পিস্তলটি উদ্ধার করে।

জুড়ী থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) এমএ বাশার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কমলগঞ্জের চৈত্রঘাট এলাকায় সিপি কোম্পানী কর্তৃক পরিবেশ দুর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন

Pic-2
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
দূর্ষণ মুক্ত পরিবেশ চাই সুস্থ নিঃশ্বাসে বাঁচতে চাই এই শ্লোগানে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে চৈত্রঘাট এলাকায় সিপি কোম্পানী কর্তৃক পোল্ট্রী হ্যাচারীর ছড়ানো দূর্গন্ধ ও রোগ বালাই থেকে মানব সম্পদ রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।
মঙ্গলবার (৩০ জুন) বেলা ১১টায় চৈত্রঘাটস্থ সিপি কোম্পানীর সম্মুখে স্থানীয় ছয়কুট, বড়চেগ, জগন্নাথপুর, প্রতাপী, লক্ষীপুর, চৈত্রঘাট গ্রামবাসীসহ কৃষক, শ্রমিক সর্বস্তরের জনসাধারণের আয়োজনে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। প্রায় ঘন্টা খানিক এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন এলাকাবাসীর পক্ষে শহীদ উল্লাহ, অশোব বিজয় দেব কানুঙ্গো কাজল, আজির উদ্দিন, আজমত উল্লাহ প্রমুখ। শত শত গ্রামবাসী মুন্সীবাজার- মৌলভীবাজার রাস্তার চৈত্রঘাট এলাকায় রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

 

Pic-1

চলে গেলেন কৌতুকাভিনেতা পাপ্পু

বিনোদন রিপোর্ট :
চলে গেলেন দর্শকপ্রিয় কৌতুকাভিনেতা মো. রাশেদ রানা পাপ্পু। সোমবার ভোরে সাহরি খাওয়ার পরপরই তিনি রাজধানীর লালবাগে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। তার বয়স হয়েছিলো ৪৭ বছর। তিনি স্ত্রী নিপা ও এক সন্তান আবিরকে রেখে গেছেন। তার অকালমুত্যুতে সংস্কৃতি অঙ্গনে শোক নেমে আসে। সোমবার বাদ জোহর লালবাগের কাজী দেওয়ান তালগাছওয়ালা মসজিদে নামাজে জানাজার পর তাকে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পাপ্পুর মামা জাভেদ। তিনি জানান, প্রায় ৩-৪ মাস আগে হার্টের সমস্যাজনিত কারণে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন পাপ্পু। সম্প্রতি শারীরিক অসুস্থতার কারণে নিয়মিত শো করতে পারতেন না পাপ্পু। তবে জীবিকা নির্বাহের জন্য চেষ্টা করতেন শো করতে। দু-একদিনের মধ্যেই তার ডাক্তারের কাছে যাবার কথা ছিলো চেক-আপের জন্য। কিন্তু তার আগেই পরপারের ডাকে চলে গেলেন তিনি। একসময়ের পর্দা কাঁপানো সকলের প্রিয় কৌতুক অভিনেতা পাপ্পু বিটিভির ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘শুভেচ্ছা’ আর মোল্লা লবণের বিজ্ঞাপনচিত্রের জন্য স্মরণীয় হয়ে আছেন।

চা শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ছুটির মজুরির দাবিতে : কমলগঞ্জের বিভিন্ন চা বাগানে শ্রমিক প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
দৈনিক ৬৯ টাকা মজুরিতে দেশের চা-শ্রমিকরা জীবন জীবিকা নির্বাহ করে চললেও তাদের সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি প্রদান করা হয় না। চা শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি দাবিতে বাগান ব্যবস্থাপক বরাবরে আবেদন করে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের বিভিন্ন চা বাগানে শ্রমিকরা সভা করেছেন।
চা বাগান শ্রমিকরা জানান, চা শ্রমিকরা সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি, কল্যাণ তহবিল ও অংশগ্রহণ তহবিলের সুযোগ সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত রয়েছেন। সপ্তাহে ৬ দিনের মজুরি হিসেবে তাদের ৪১৪ টাকা প্রদান করা হয়। অথচ ২০১৩ সালের সংশোধিত শ্রম আইনের ১০৩ (গ) ধারা মোতাবেক সকল শ্রমিকদের ছুটির দিনের মজুরি প্রদান বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আলীনগর চা-বাগানের রূপনারায়ন কৈরী, সজল বাক্তি, রণজিৎ নুনিয়াসহ কয়েকজন শ্রমিক জানান, তারা ছুটির দিনের মজুরি প্রদানের জন্য গত ১৪ জুন বাগানের ব্যবস্থাপক বরাবর লিখিত আবেদন পেশ করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন চা বাগানের শ্রমিকরা আইনিভাবে প্রাপ্য সুবিধার জন্য সংশ্লিষ্ট বাগান ব্যবস্থাপক বরাবর আবেদন করা হচ্ছে। এছাড়াও গত কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিকভাবে শ্রমিকরা শমশেরনগর, আলীনগর, সুনছড়া, ডবলছড়া চা বাগানে এই দাবি আদায়ে সভা করেছেন। গত বুধবার বিকাল ৩টায় আলীনগর চা বাগানে, বৃহস্পতিবার শমশেরনগর চা বাগানে সভায় চা শ্রমিক সংঘের আহবায়ক রাজদেও কৈরী, রূপনারায়ন কৈরী, সীতারাম বীন, গৌরি রানী কৈরী, লছমি রানী রাজভর বক্তব্য রাখেন। রোববার ডবলছড়া ও সোনছড়া চা বাগানে শ্রমিক প্রতিনিধিদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় চা শ্রমিক সংঘের আহবায়ক রাজদেও কৈরী, রূপনারায়ন কৈরী, লছমি রানী রাজভর, সুখরাম নায়েক, দিবা শুক্ল বৈদ্য ও ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সম্পাদক রজত বিশ্বাস বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা বলেন, বিভিন্ন সেক্টরের শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি পেলেও দীর্ঘ দিন ধরে চা-শ্রমিকদের মজুরি ৬৯ টাকায় আটকে আছে। অথচ ২০১৩ সালের সংশোধিত শ্রম আইনে সকল শ্রমিকদের ছুটির দিনের মজুরি প্রদান বাধ্যতামূলক করা হলেও চা শ্রমিকরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত। শ্রম আইন-২০১৩ অনুযায়ী সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি প্রদানের জন্য তারা বাগান কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করেছেন এবং একই সাথে সভা-সমাবেশ করে কর্তৃপক্ষ বরাবরে দাবি জানাচ্ছেন।

ক্লাস শুরু ২ জুলাই : একাদশ শ্রেণির ভর্তির ফলাফল নিয়ে কমলগঞ্জে বিড়ম্বনায় কলেজ ও শিক্ষার্থীরা

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ২০১৫ সালের এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হচ্ছে পহেলা জুলাই থেকে। নতুন নিয়মে পছন্দের পাঁচটি কলেজের নাম দিয়ে শিক্ষা বোর্ডে অন লাইনে ভর্তি আবেদন করা হলেও সোমবার পর্যন্ত সিলেট শিক্ষা বোর্ড পূর্ণাঙ্গভাবে একাদশ শ্রেণির ভর্তির ফলাফল প্রকাশ করতে পারেনি। ফলে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থী ও কলেজ কর্তৃপক্ষ বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।
সোমবার কমলগঞ্জ উপজেলারর সুজা মেমোরিয়াল কলেজ, কমলগঞ্জ গণ-মহাবিদ্যালয়, আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজ ঘুরে দেখা যায়, ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা ভিড় করেছেন একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য। তবে সিলেট শিক্ষা বোর্ড থেকে ভর্তি ফলাফল অন লাইনে প্রকাশ না হওয়ায় আগত শিক্ষার্থীদের ভর্তি ফরম জমা নিয়ে ভর্তি করছেন না কলেজ কর্তৃপক্ষ।
শমশেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজ অধ্যক্ষ ম. মুর্শেদুর রহমান বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ৩০ জুনের মধ্যে ভর্তির সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। আর জুলাই মাসের ২ তারিখ থেকে নতুন একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হওয়ার কথা। গত বছর অন লাইনে শিক্ষার্থীরা পছন্দের একটি কলেজের নাম উল্লেখ করে আবেদন করলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড নিজেরাই ফলাফল দিয়েছিলেন। এবছর একজন শিক্ষার্থী পছন্দের পাঁচটি কলেজের নাম উল্লেখ করে আবেদন করলে কেন্দ্রীয়ভাবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ব বিদ্যালয় থেকে ফলাফল ঘোষণার পর ছাত্র ভর্তি করার কথা। তবে ২৯ জুন সোমবার বিকাল সাড়ে চারটা পর্যন্ত অন লাইনে চেষ্টা করেও নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি আবেদনের ফলাফল পেতে বিড়ম্বনার শিকার হয়েছেন।
কমলগঞ্জ গণ-মহাবিদ্যালয় অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান মিঞা ও আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দীন বলেন, শমশেরনগর বি এ এফ শাহীন কলেজের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানায়, এ অবস্থায় তারাও বিড়ম্বনার মাঝে পড়েছেন। সূত্রটি আরো জানায়, শমশেরনগর বি এ এফ শাহীন কলেজে ভর্তির জন্য দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষার্থী আসছেন। তবে কোন সিদ্ধান হয়নি বলে তারা সমস্যার মাঝে পড়েছেন

সংসদে নারী সদস্যদের তোপের মুখে এরশাদ !!

Earshed_sm_467750622নিউজ ডেস্ক ::

নিজেদের ক্ষমতা বাড়ানো নিয়ে এর আগে জাতীয় সংসদে একাধিকবার দাবি জানালেও ‘নিজেরা যে ক্ষমতাহীন‘ তা মানতে নারাজ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যরা।
এ কারনেই সোমবার জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ যখন তাদেরকে ‘শোপিস’ বলে আখ্যায়িত করলেন তখন চিৎকার করে সম্মিলিতভাবে এর প্রতিবাদ জানালেন তারা। আর তখন বরাবরের মতোই পুরুষ সদস্যরা ঠোটে মুচকি হাসি নিয়ে বসে ছিলেন নিজ আসনে।
এরশাদ ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এমন মন্তব্য করেন। আর এ মন্তব্য করে তাৎক্ষনিকভাবে নারী সদস্যদের তোপের মুখে পড়েন তিনি।
নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে এরশাদ তার বক্তব্যের এক পযায়ে বলেন, ‘আমরা কথায় কথায় বলি, আমাদের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, সংসদ উপনেতা নারী; বিরোধীদলীয় নেত্রী নারী; কিন্তু এরা শোপিস। এরা কিন্তু শোপিস। বাইরে কিন্তু এই অবস্থা নেই। বাইরে নারীরা অসহায়।’
তিনি এ মন্তব্য শুরু করার সাথে সাথেই চারদিক থেকে নারী সদস্যরা এর তীব্র প্রতিবাদ শুরু করেন। তবে তাতেও থেমে যাননি এরশাদ। তিনি তার বক্তব্য ফের বলেন, বাইরে কিন্তু নারীরা অসহায়।
মনে আছে ২১ ফেব্রুয়ারীতে রাতের বেলার কথা। নারীরা শহীদ মিনারে থাকেন না, যায় না। কোন নারী সেখানে যায় না। কেননা ভয়ে যায় না। আমি যদি ভুল কোন কথা বলে থাকি তাহলে উথড্রো করলাম। কথা হলো মধ্যরাতে নারীরা সেখানে যেতো ভয় পায়। কেন ভয় পায়?
তখনও নারী সদস্যরা এর প্রতিবাদ করতে থাকলে এরশাদ তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘বসুন মাননীয় সদস্য বসুন, নিরবতা পালন করুণ’। পহেলা বৈশাখের কথা মনে আছে? আমি ছিলাম না।
এদেশের সংস্কৃতি, সবাই মিলে আনন্দ করা। সেখানে যা হয়েছিল তা নিয়ে কি বিচার হয়েছে? ভিডিওতে যার যার ছবি এসেছিলো তাদের বিচার হয়নি। আমার সময়ে একটি নারীকে এসিড ছোড়া হয়েছিল, তাকে আমি ফাঁসি দিয়েছিলাম। যে কারনে এসিড ছোড়া কমে গিয়েছিলো।
এরশাদের বক্তব্য শেষ হলে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মাননীয় সদস্য যেসব অসংসদীয় শব্দ ব্যবহার করেছেন সেগুলো এক্সপাঞ্জ করা হলো।

কুলাউড়ায় গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৪ লাখ টাকা শিক্ষা বৃত্তি প্রদান

unnamed কুলাউড়া প্রতিনিধি :
কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের রাজস্ব তহবিলের অর্থায়নে উপজেলার প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও কলেজসহ ১২২ প্রতিষ্টানের গরীব ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে ৪ লাখ টাকা শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

২৯ জুন সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা জনমিলন কেন্দ্রে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজমুল হাসানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জাহিদুর রহমানের পরিচালনায় বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আসম কামরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নেহার বেগম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলুল হক খান সাহেদ, পৃথিমপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল লতিফ, শরীফপুর ইউপি চেয়ারম্যান তফাজ্জুল হোসেন চিনু মিয়া, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার, উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মামুনুর রহমান, কুলাউড়া প্রেসক্লাব সাধারন সম্পাদক মোঃ খালেদ পারভেজ বখশ, বিএইচ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল কাইয়ুম ও রাবেয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস ছালাম।

প্রধান অতিথি কামরুল ইসলাম বলেছেন, শেখ হাসিনা সরকার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, বিদ্যুৎ, তথ্যপ্রযুক্তিসহ নানা বিষয়ে সর্বোচ্চ গুরত্ব দিয়ে কাজ করছে। বিশেষ করে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম শিক্ষার্থীদেরকে মানব সম্পদে রুপান্তরিত করতে শিক্ষাবৃত্তিসহ নানাবিদ সুযোগ সুবিধা দিয়ে আসছে । যা সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আমাদেন সন্তানদের আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

পরে অতিথিবৃন্দরা উপজেলা পরিষদের রাজস্ব তহবিলের অর্থায়নে উপজেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও কলেজসহ ১২২প্র তিষ্টানে গরীব ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদেরকে জনপ্রতি পনেরশত ও দুই হাজার করে ৪ লাখ নগদ টাকা বৃত্তি প্রদান করেন।