সদ্য সংবাদ

আদমপুরে একটি বিদ্যালয়ের ডালপালা কাটতে গিয়ে গাছ উধাও !

আদমপুর থেকে সংবাদদাতা জানান

509

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রেজুলেশনে সিন্ধান্ত হয় বিদ্যালয়ের গাছের ডালপালা কাটা হবে। কিন্তু প্রধান শিক্ষক স্কুল ত্যাগের পর ডালপালার বদলে চারটি গাছ উধাও হয়ে যায়। বিষয়টি এলাকায়   সৃষ্টি হয় তোলপাড়। স্থানীয় সাংসদের কাছেও দেওয়া হয় একটি লিখিত অভিযোগ।   ।মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আব্দুল মতিন বরাবরে লিখিত অভিযোগ সূত্রে ও সরজমিন খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে আদমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভিতর থেকে বড় ৪টি মেহগনি গাছ কেটে নেওয়া হয়।

ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি মোস্তফা মিয়া, এসএমসি সদস্য ও স্থানীয় ইউপি সদস্য বশির বক্স, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও আওয়ামীলীগ নেতা হাজির বক্সসহ অভিভাবক ও এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, এসএমসির সভাপতি ও ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও শিক্ষানূরাগী সদস্য ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মইনুল ইসলামের ইন্ধনে  কেটে নেওয়া গাছের গুড়ি সাথে সাথে বালুর নীচে চাপা দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষিকা  আনোয়ারা বেগম মুন্নী জানান, কমিটির সম্মতিতে রেজুলেশন করে গাছের ডালপালা কাটার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু বিদ্যালয় ছুটির পর বাড়ীতে চলে গেলে কমিটির লোকজন গাছগুলো  কেটে ফেলেন। পরে আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি তার হেফাজতে গাছ রয়েছে বলে জানান।

এ ব্যাপরে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। গাছ জিম্মার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোশাররফ হোসেন জানান, তদন্তক্রমে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।