সদ্য সংবাদ

পূর্ব বিরোধের জের ধরে- কমলগঞ্জের মাধবপুরে রিক্সাচালকের দায়ের কূপে বৃদ্ধা গৃহবধূ গুরুতরভাবে আহত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Untitled-1 copy
পারিবারিক পূর্ব বিরোধের জের ধরে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নে এক রিক্সা চালকের দায়ের কূপে বৃদ্ধা গৃহবধূ  আফিয়া বেগম (৫০) গুরুরতরভাবে আহত হয়ে এখন মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) ভোর ৬টায় মাধবপুর ইউনিয়নের লঙ্গুরপার গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, শ্বশুড় শ্বাশুড়ির অনুমতি ছাড়া প্রতিবেশী মাসুক মিয়ার বাড়িতে যাওয়া নিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় লঙ্গুরপার গ্রামের মখলিছ মিয়ার স্ত্রী আফিয়া বেগমের(৫০) সাথে তার ছোট ছেলে শাহ আলমের স্ত্রীর তর্ক বিতর্ক হয়েছিল। এর জের ধরে মঙ্গলবার ভোর ৬টায় লঙ্গুরপুল (সেতু) এলাকায় একা পেয়ে প্রতিবেশী রিক্সা চালক মাসুক মিয়া (৫৫) দা দিয়ে অতর্কিতভাবে গৃহবধূ আফিয়া বেগমকে কূপিয়ে গুরুতরভাবে আহত করে পালিয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে আহত গৃহবধূর স্বামী মখলিছ মিয়াসহ গ্রামবাসীরা তাকে (গৃহবধূকে) উদ্ধার করে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। গৃহবধূর অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে দ্রুত মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
আহত গৃহবধূর বড় ছেলে কামাল মিয়া, বলেন, বাড়ির পারিবারিক নিয়ম কানুন না মেনে তার ছোট ভাইর স্ত্রী প্রতিবেশী মাসুক মিয়ার বাড়িতে যাতায়াত করে। মুরব্বীদের মান্য করে না। এ নিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় তার মা ( আফিয়া বেগম) আর ছোট ভাইর স্ত্রীর মাঝে তর্ক বিতর্ক হয়েছিল। এর জের ধরে প্রতিবেশী মাসুক মিয়া মঙ্গলবার ভোরে প্রাত ভ্রমনকালে একা পেয়ে মাকে (আফিয়া বেগমকে) দা দিয়ে কূপিয়ে আহত করে। মাসুক মিয়ার দায়ের কূপে তার মায়ের বাম  হাত ভেঙ্গে গেছে। তাছাড়া মাথাসহ দেহের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম আছে। এখন মাকে বাঁচানোর চিকিৎসায় ব্যস্ত আছেন দাবি করে কামাল মিয়া আরও বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা করবেন। কামাল মিয়া আরও জানান, রিক্সা চালক মাসুক মিয়া কমলগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের একজন সক্রিয় সদস্য।
মাধবপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মো: মোতাহের আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তিনি সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে গিয়ে আহত গৃহবধূকে দেখে তার খোঁজ খবর নিবেন।
ঘটনার পর থেকে কিছুটা আত্মগোপনে থাকায় অভিযুক্ত রিক্সা চালক মাসুক মিয়াকে না পেলেও তার ছেলে আব্দুল হামিদ মুঠোফোনে এ প্রতিনিধিকে বলেন, আফিয়া বেগমের আচরণ ভাল নয়।  তিনি প্রায়ই ছোট পুত্রবধূকে মারধর করেন। এ নিয়ে কথা বললে আফিয়া বেগম তার বাবা মাসুক মিয়াকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করেন। এ পূর্ব বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার সকালে তার বাবা মাসুক মিয়া একটি গাছের ডাল দিয়ে গৃহবধূ আফিয়া বেগমকে আঘাত করেছেন। তবে দা দিয়ে নয়।