সদ্য সংবাদ

বিভাগ: পতনউষার

কমলগঞ্জে দিনব্যাপী চক্ষু চিকিৎসা সেবা

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

চক্ষু শিবির, কমলগঞ্জ
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের শহীদনগর বাজারে দিনব্যাপী চক্ষু চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়। সোমবার সকাল ১০টায় গ্রাম বাংলা সমাজ কল্যাণ পরিষদের আয়োজনে ও পল্লী চিকিৎসক আব্দুল হান্নানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত চক্ষু চিকিৎসা সেবা শিবিরের উদ্বোধন করেন পতনউষার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী তওফিক আহমদ বাবু।
চক্ষু চিকিৎসা শিবিরের আলোচনা পর্বে বক্তব্য রাখেন পতনউষার ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান নারায়ন মল্লিক সাগর, ইউনয়ন যুবলীগ সম্পাদক আবুল বশর জিল্লুল। চক্ষু চিকিৎসা সেবা শিবির পরিচালনায় সহযোগিতা করেন মাহিদুল ইসলাম, মনসুর খান, আব্দুল মোমিন, আনোয়ার খান, এনামুল সাকের, হোসেন জয় ও শাকিল আহমদ। বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল মৌলভীবাজারের ডা. সুস্মিতা দেব, ডা. মোজাহের হোসেন, ডা. অনুপম পাল ও পিআরও মেডিক্যাল সহকারী হাফিজুর রহমান সহ¯্রাধিক চক্ষু রোগীকে দেখে সেবাপত্র প্রদানসহ বিনা মূল্যে ঔষধ বিতরণ করেন। এছাড়াও পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ছানি পড়া রোগীদের বাছাই করে পরবর্তী চিকিৎসা সেবা দানে মৌলভীবাজার চক্ষ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

কমলগঞ্জে গাছ কাটার মামলার স্বাক্ষী দেওয়ায় দুই যুবককে কুপিয়ে গুরুতর আহত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

গাছ কাটার মামলার স্বাক্ষী দেওয়ায় দুই যুবককে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। আহত ১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার দুই পা ও দুই হাতের একাধিক স্থান ভেঙ্গে ও বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। শনিবার (১ ডিসেম্বর) মৌলভীবাজারে কমলগঞ্জের দেওছড়া চা বাগানের  মন্দির এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।
জানা যাKamalgonj Pic Injured 1য়, কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নে বৈদ্ধনাথপুর গ্রামে গত ২৫ অক্টোবর রাতে একদল দুর্বৃত্ত এনামুল হক শামীমের সমন্বিত লেবু ও আনারাস বাগানের কিছু গাছ প্রতিহিংসামূলক দুর্বত্তরা কেটে ফেলেছিল। এ ঘটনায় বাগান মালিক এনামুল হক শামীম বাদী হয়ে এ গ্রামের তাহির মিয়া (৫৫), তার ছেলে লোকমান মিয়া (২৮)সহ বেশ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছিলেন। এ মামলায় বৈদ্ধনাথপুর গ্রামের বাতির মিয়ার ছেলে শাহীন মিয়া (৩৫) ও মিছির মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীল আলম (৩৪) স্বাক্ষী ছিলেন। এ মামলার পর থেকে উভয় পক্ষের মাঝে বিরোধ আরও তীব্র আকার ধারণ করে।
লেবু ও আনারস বাগান মালিক এনামুল হক শামীম অভিযোগ করে বলেন, শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় দিকে তার মামলার দুই স্বাক্ষী শাহীন ও জাহাঙ্গীর শমশেরনগর আসার পথে দেওছড়া চা বাগানের মন্দির এলাকায় পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা তাহির মিয়া (৫৫), তার ছেলে লোকমান মিয়া (২৮), আক্তার আলী (৩৪) ও রফিক আলী (২৮)-ও নেতৃত্বে ১০/১২ জনের সশস্ত্র একটি দল হামলা চালায়। হামলাকারীরা প্রথমে পিটিয়ে শাহীন মিয়ার দুই হাত ও দুই পায়ের একাধিক স্থান ভেঙ্গে দেয়। পরে চাকু দিয়ে  বুকে কুপিয়ে গুরুতরভাবে আহত করে। একই সাথে জাহাঙ্গীর আলমকে মাথায় ও হাতে কুপিয়ে আহত করে। আহত শাহীন ও জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে আশঙ্কাজনক থাকায় দুইজনকেই সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

Kamalgonj Pic Injured 2
তবে শনিবার বিকালে মুঠোফোনে আলাপকালে প্রধান অভিযুক্ত তাহির মিয়া বলেন, শামীমের সাথে তার বিরোধ চলছে। এটি নিষ্পত্তির চেষ্টা করছেন। শনিবার শাহীন ও জাহাঙ্গীর তার ছেলে লোকমানকে ধান খেতে মারধর করছিল। ছেলের আত্ম চিৎকার শুনে গ্রামের কিছু লোক এগিয়ে এসে তাদের মারধর করেছেন। ঘটনার পর থেকে তার ছেলে লোকমান বাড়িতে আর ফিরেনি। কুপানোর মত ঘটনা তিনি জানেন না ও তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িত নন বরে দাবি করেন।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) অরুপ কুমার চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উভয়পক্ষের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। শনিবারের ঘটনাটি বড় ধরনের রক্তাক্ত ঘটনা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় নতুন করে একটি মামলা হবে। পুলিশ পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

মৌলভীবাজার জেলার ৪টি আসনে মনোনয়ন পেলেন ১২ জন প্রার্থী : মৌলভীবাজার-৩ থেকে স্বামী-স্ত্রী মনোনয়ন, মৌলভীবাজার-৪ থেকে পিতা পুত্র মনোনয়ন

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

12
মৌলভীবাজার জেলার ৭টি উপজেলা নিয়ে ৪টি সংসদীয় আসন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জেলার ৪টি আসনে বিভিন্ন দল থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন ১২ জন প্রার্থী। এর মধ্যে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ী) আসনে আওয়ামীলীগের বর্তমান সংসদ সদস্য হুইপ মো: শাহাব উদ্দিন, বিএনপির থেকে সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী ও শিল্পপতি নাসির উদ্দিন মিঠু। মৌলভীবাজার-২ আওয়ামীলীগে নেতৃত্বাধীন (বিকল্পধারা) সাবেক বিএনপির সংসদ সদস্য এম এম শাহীন, জাতীয় এক্যফ্রন্টের সাবেক আওয়ামীলীগ সংসদ সদস্য ডাকসুর ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর, মৌলভীবাজার-৩ (মৌলভীবাজার সদর-রাজনগর) থেকে জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি নেছার আহমদ, সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান পুত্র জেলা বিএনপির সভাপতি এবং সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান ও এ আসনে এম নাসের রহমানের স্ত্রী রেজিনা নাসেরও মনোনয়ন পেয়েছেন।

13

মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আওয়ামীলীগে থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য ও সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ¦ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ।  বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন মুজিবুর রহমান চৌধুরী (হাজী মুজিব) ও তাঁরই পুত্র আশিক মুঈদ চৌধুরী। এ আসন থেকে বিএনপির নেতৃত্বাধিন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা গনফোরাম সভাপতি অ্যাডভোকেট শান্তি পদ ঘোষ।
আওয়ামীলীগের (নৌকা) প্রতীকের প্রার্থী  চূড়ান্ত হলেও মৌলভীবাজার জেলার ৪টি আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে মোট ৮ জনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এই ৮ জন থেকে ৪ জনকে প্রার্থী রাখা হবে। তবে কোন ৪ জন ধানের শীষ নিয়ে প্রতিদন্ধিতা করবেন তা এখনও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা।

শুক্রবার (২৩ নভেম্বর) কমলগঞ্জে বিষ্ণুপ্রিয়া ও মৈ-তৈ মণিপুরীদের মহারাসলীলা

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Ras-1

দুটি পাতা একটি কুঁড়ি প্রকৃতির অপার লীলাভূমি সমৃদ্ধময় মনিপুরীদের ঐতিহ্যবাহী শ্রীশ্রী রাধাকৃষ্ণের মহারাসলীলা ২৩ নভেম্বর শুক্রবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এলাকা জুড়ে বিরাজ করছে উৎসব আমেজ। আনন্দের বাহারে মানুষের তনু মন উল্লাসিত।
মহারাস বলতে প্রেমরসকে বুঝানো হয়েছে। বস্তুত রস শব্দ থেকেই রাস শব্দটির উৎপত্তি। রস আস্বাদনের জন্য রাধাকৃষ্ণের লীলানুকরণে নৃত্য গীতের মাধ্যমে যে উৎসব উদযাপন করা হয় তাই রাসোৎসব। নৃত্য, সংগীতে  মনিপুরীদের প্রাচীন জাতীয় লোক নৃত্য ‘লাই হারাওবা থেকেই রাস নৃত্যের সৃষ্টি।
প্রতি বছর কার্তিক পূর্ণিমা তিথিতে স্বাড়ম্বরে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণময় শিল্পকলা সমৃদ্ধ মনিপুরী সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী মহারাসলীলা উৎসব। মনিপুরী অধ্যূষিত মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ও আদমপুরের আশ্বিন মাসের শুরু থেকেই উৎসবের সাড়া পড়ে যায়। উপজেলার মনিপুরী সম্প্রদায়ের লোকের সঙ্গে অন্য সম্প্রদায়ের লোকেরাও মেতে উঠে এ আনন্দ উৎসবের। দেশের বিভিন্ন স্থান সহ  ভারত থেকেও মনিপুরী সম্প্রদায়ের লোকজন সহ জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে অনেকেই ছুটে আসেন মহারাসলীলা অনুষ্ঠান উপভোগের জন্যে। মনিপুরী সম্প্রদায় অধ্যুষিত কমলগঞ্জের মাধবপুর ও আদমপুরের রাসোৎসবের জন্যে তৈরী মণ্ডপগুলো সাদা কাগজের নকশায় সজ্জিত মণ্ডপগুলোতে দূর-দূরান্ত থেকে আগত শিশু নৃত্য শিল্পীদের সুনিপুণ অভিনয় যেন মন্ত্র মুগ্ধ করে রাখে দর্শনার্থীদের।

Kamalgonj Pic--Rass

রাসলীলা উপলক্ষে মাধবপুর শিববাজারস্থ জোড়াম-পে আজ শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে গোধীলীলগ্ন পর্যন্ত রাখালনৃত্য, সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, রাত ৯ ঘটিকায় নট সংকীর্ত্তন, রাত্র ১১ ঘটিকা থেকে ঊষালগ্ন শ্রীশ্রীকৃষ্ণের মহারাসলীলানুসরণ অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি। অন্যদিকে আদমপুরস্থ তেতইগাঁও মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্সে ৩৩তম মহারাসলীলা উৎসব দিবারাত্রী সাড়ম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্য অনুষ্ঠানের মধ্যে গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকেবেন সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।
জানা যায় ১৭৭৯ খৃস্টাব্দে মণিপুরের মহারাজ স্বপ্নাবিষ্ট হয়ে যে নৃত্য গীতের প্রবর্তন করেছিলেন তা-ই রাস নৃত্য। মহারাজার মৃত্যুর একশত বছর পরে মহারাজ চন্দ্র কীর্তির শাসনামলে গোটা রাস নৃত্য আচৌকা ভঙ্গী, বৃন্দাবন ভঙ্গী, খুডুম্বা ভঙ্গী, গোষ্ট ভঙ্গী, গোষ্ট বৃন্দাবন ভঙ্গী, আচৌবা, বৃন্দাবন ভঙ্গী তাণ্ডব পর্যায়ে পড়ে। উলে¬খ্য, মহারাজ ভাগ্য চন্দ্রের পরবর্তী রাজাগনের বেশিরভাগই ছিলেন নৃত্য গীতে পারদর্শী এবং তারা নিজেরাও রাস নৃত্যে অংশগ্রহণ করতেন। এর ফলে মনিপুরীরা এ কৃষ্টির ধারাবাহিকতার সূত্র ধরেই ১৯৪২ খৃস্টাব্দ থেকে আজও কোনও রূপ-বিকৃতি ছাড়াই কমলগঞ্জে উদযাপিত হয়ে আসছে এ রাস উৎসব। মনিপুরী এ নৃত্যকলা শুধু কমলগঞ্জের নয় গোটা ভারতীয় উপমহাদেশের তথা সমগ্র বিশ্বের নৃত্য কলার মধ্যে একটি বিশেষ স্থান দখল করে নিয়েছে।
১৯২৬ সালের সিলেটের  মাছিমপুরে মনিপুরী মেয়েদের পরিবেষ্টিত রাস নৃত্য উপভোগ করে মুগ্ধ হয়েছিলেন বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। পরে কবিগুরু কমলগঞ্জের নৃত্য শিক্ষক নীলেশ্বর মুখার্জীকে শান্তি নিকেতনে নিয়ে প্রবর্তন করেছিলেন মনিপুরী নৃত্য শিক্ষা।
Pic- Ras Lila

  রাসোৎসবের কয়েকদিন পূর্ব থেকে চলেছে এর প্রস্তুতি। মনিপুরী সম্প্রদায়ের বাড়ি বাড়ি কুমারী ও কিশোরদের রাস লীলায় অংশগ্রহণ করার জন্যে নৃত্য ও সংগীতের তালিম নেয়ার ধুম পড়ে । কিশোরীরা  রাসলীলায় অংশগ্রহণ করে এবং রাখাল নৃত্যের শিশু-কিশোর অংশগ্রহণ করে। রাখাল নৃত্য সাধারণ দিনের বেলায় অর্থাৎ সূর্যাস্তের আগেই অনুষ্ঠিত হয়। কার্তিক মাসের পূর্ণিমা তিথি ২৩ নভেম্বর শুক্রবার দুপুরে শিশু শিল্পীরা রাখাল সাজে সজ্জিত হয়ে একটি মাঠে সমবেত হবে। এদের পরনে থাকবে ধূতি, মাথায় ময়ূর, পালকের মুকুট, কপালে চন্দ্রের তিলক, গলায় সোনার মালা, হাতে বাঁশি ও পায়ে নূপুর। এরপর বাঁশি হাতে বাদ্যের তালে তালে নৃত্য করতে করতে শ্রীকৃষ্ণের বিভিন্ন অনূকরণে একজন শিশু শিল্পী মাঠে প্রবেশ করবে। অনেকক্ষণ ধরে চলবে এই নৃত্য গীতি। রাতে শুরু হবে মহারাস লীলা। শুরুতেই পরিবেশিত হয়  রাসধারীদের অপূর্ব মৃদঙ্গ নৃত্য। মৃদঙ্গ নৃত্য শেষে প্রদীপ হাতে নৃত্যের তালে তালে সাজানো মঞ্চে প্রবেশ করেন শ্রীরাধা সাজে সজ্জিত একজন নৃত্যশিল্পী তার নৃত্যের সঙ্গে সঙ্গে বাদ্যের তালে তালে পরিবেশিত হবে মনিপুরী বন্দনা সঙ্গীত। শ্রীকৃষ্ণ রূপধারী বাঁশী হাতে মাথায় কারুকার্য খচিত ময়ুর পুচ্ছধারী এক কিশোর নৃত্য শিল্পী তার বাঁশির সুর শুনে  ব্রজ গোপী পরিবেষ্টিত হয়ে কুমারী শ্রী রাধা মঞ্চে আসবে। শুরু হবে সুবর্ণ কংকন পরিহিতা মনিপুরী কিশোরীদের  নৃত্য প্রদর্শন।
এ রাসোৎসব ঘিরে কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর জোড়া মন্ডপ এলাকায়  প্রতি বছরই বসে মেলা। কৃষি সরঞ্জাম, মাটির তৈরী সামগ্রী, ঘর কন্যার সামগ্রীসহ নানা দ্রব্যের পসরা সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। এছাড়া মণিপুরীদের নিপুন হস্তে তৈরী তাঁতের বিভিন্ন রকমের কাপড়। সারারাত ধরে চলে মেলা। মেলায় মনিপুরীদের তৈরী সামগ্রীর দোকান গুলোতে থাকে  ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়।
মহারাত্রির আনন্দের পরশ পেতে আসা হাজার হাজার নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর,কবি-সাহিত্যিক, সাংবাদিক, দেশী-বিদেশী পর্যটক, বরেণ্য জ্ঞাণী-গুণী লোকজনসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠবে গোটা উৎসব অঙ্গন। মণিপুরী সম্প্রদায়ের পূণ্যস্থাণ হিসাবে বিবেচিত মাধবপুর ও আদমপুরে রাসোৎসবের জন্য তৈরী সাদাকাগজের নকশায় সজ্জিত মন্ডপগুলো এই একটি রাত্রির জন্য হয়ে উঠবে লাখো মানুষের মিলনতীর্থ। মনিপুরী শিশু নৃত্যশিল্পীদের সুনিপুন নৃত্যাভিনয় রাতভর মন্ত্রমুগ্ধ করে রাখবে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের।

রাস উৎসবে আসার রাস্তা ঃ
সড়ক কিংবা রেলপথে দেশের যেকোন স্থান থেকে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আসা যায়। কমলগঞ্জ উপজেলা সদরের ভানুগাছ বাজার চৌমুহনী থেকে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান সড়ক হয়ে প্রায় ৪ কিঃ মিঃ দূরে মাধবপুর জোড়া মন্ডপস্থ বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী সম্প্রদায়ের রাসলীলা অনুষ্ঠান স্থলে যাওয়া যায়। অন্যদিকে কমলগঞ্জ উপজেলা সদরের ভানুগাছ বাজার চৌমুহনী অথবা উপজেলা চৌমুহনী থেকে যেকোন যানবাহনে আদমপুর সড়ক দিয়ে প্রায় ৮ কিঃ মিঃ এগিয়ে গেলেই আদমপুর বাজার। আদমপুর বাজারের পার্শ্বেই মণিপুরী মৈ-তৈ সম্প্রদায়ের মহারাসলীলার অনুষ্ঠানে যাওয়া যায়। #

আওয়ামীলীগের চূড়ান্ত প্রার্থীরা মঙ্গলবার চিঠি পাবেন

কমলকুঁড়ি ডেস্ক রিপোর্ট

1

চূড়ান্ত ভাবে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন কে পাচ্ছেন মঙ্গলবার থেকে চিঠি দেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। চূড়ান্ত প্রার্থীদের উদ্দেশে চিঠি ইস্যুর করতে রোববার (১৮ নভেম্বর) থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে কাজ শুরু করেছেন দলটির দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ। আজ (সোমবার) সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে সংসদীয় বোর্ডের শেষ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় বাকি প্রার্থীদের মনোনয়ন তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। ইতোমধ্যে অনুষ্ঠিত সংসদীয় বোর্ডের সভায় চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা দফতর সম্পাদকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। অতি গোপনীয়তার সঙ্গে দলের দফতর সম্পাদক সার্বিক কাজ শেষ করে সোমবার সংসদীয় বোর্ডের সভাপিত শেখ হাসিনার স্বাক্ষর নেবেন। এরপর মনোনীত প্রার্থীদের কাছে চিঠি পাঠানো হবে।

এদিকে গত কয়েকদিন সংসদীয় সভায় রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, রংপুর, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগে দলীয় প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করে আওয়ামী লীগ। আজ সোমবার চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের নৌকার প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। মনোনীত প্রার্থীদের চিঠি ইস্যুর বিষয়টি সম্পন্ন হওয়ার পর শরিক ও মহাজোটের আসনগুলো বাদে দলীয় প্রার্থীদের নামের তালিকা একযোগে ঘোষণা করা হবে।

গত শুক্রবার ও শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদীয় দলের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সংসদীয় বোর্ডেও বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা এবার দলের মনোনয়নের তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও বর্তমান এমপিদের মধ্যেও বাদ পড়েছেন অনেকে। আবার কয়েকজন নতুন মুখও রয়েছেন তালিকায়। আগামী ২৫ থেকে ২৬ নভেম্বরের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনশ’ আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার প্রস্তুতি রয়েছে আওয়ামী লীগের।

কমলগঞ্জে গরুর শিম গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে কলেজ ছাত্রীকে মারধর ॥ থানায় লিখিত অভিযোগ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

3
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নে গরু শিম গাছ খাওয়া নিয়ে প্রতিবাদ করায় এক কলেজ ছাত্রীকে মারধর করেছে প্রতিপক্ষ। আহত কলেজ ছাত্রী কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) রাতে ছাত্রীর মা ৫ জনকে আসামীকে কমলগঞ্জ থানায় লিখিত আবেদন করেছেন। গত মঙ্গলবার দুপুরে আদমপুর ইউনিয়নের আধকানি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।     আহত কলেজ ছাত্রী আধকানী গ্রামের আব্দুল হকের মেয়ে রিমা আক্তার (১৭)। সে কমলগঞ্জে আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন কলেজ ছাত্রী এ প্রতিনিধিকে জানায়, প্রায় দুই বছর আগে তাদের একটি গরু চুরি নিয়ে প্রতিবেশী রেজান মিয়া ও তার ভাই রজব আলীর পরিবারের সাথে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে একবার সালিশ বিচারও হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে রেজান মিয়াদের একটি গরু তাদের(রিমাদের) বাড়ির একটি শিম গাছ খেয়ে ফেলে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে রেজান মিয়া, তার ছেলে রুবেল মিয়া (২৫), রেজান মিয়ার ভাই রজব আলীর ছেলে রনি মিয়া (২০), রকি মিয়া (১৮) ও মেয়ে নাজমিন (২২) এসে অতর্কিতে এসে তাকে (রিমাকে) মারধর করে। পরে পরিবার সদস্যরা রিমাকে উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। মঙ্গলবার রাতেই রিমা আক্তারের মা জয়গুন বেগম বাদি হয়ে ৫জনকে আসামী করে কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।
আদমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন বলেন, গরু বাড়ির শিম গাছ খেয়েছিল বলে রিমা মারমুখী হয়ে এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষ হারকাভাবে রিমাকে মারধর করেছে। বিষয়টি তিনি সালিশ বিচারে দেখে দিবেন বলেছিলেন। তার পরও রিমাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে রাতেই থানায় অভিযোগ করলে পুলিশি তদন্ত শুরু হয়েছে।
আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিন মারধরে ছাত্রী আহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাঁকে জানিয়েই সে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে। অভিযুক্ত রেজান মিয়া অভিযোগটি সঠিক নয় দাবি করে বলেন, শিম গাছ নিয়ে তুচ্ছ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে রিমা আক্তার এ অভিযোগ করেছে। আসলে এখানে মারধরের কোন ঘটনাও ঘটেনি। তিনি আরও বলেন বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যান সামাজিকভাবে দেখে দেবার কথা বললেও কোন একটি মহলের প্ররোচনায় ছাত্রীটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে পরে তার মা থানায় মিত্যে অভিযোগ করেছেন।
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান অভিযোগ গ্রহনের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি একজন উপ-পরিদর্শক তদন্ত করে দেখছেন।

পুনরায় তফসিল ঘোষণা: ৩০ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ : মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ২৮ নভেম্বর

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

11-Copy

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পুনরায় তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। ভোট গ্রহণের তারিখ ২৩ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ৩০ ডিসেম্বর করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৯ নভেম্বরের পরিবর্তে ২৮ নভেম্বর করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে ইভিএম প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা এই ঘোষণা দেন। মনোনয়নপত্র বাছাই এবং প্রত্যাহারের বিষয়টি পরবর্তীতে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

এরআগে ৮ নভেম্বর জাতির উদ্দেশে ভাষণে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন সিইসি কে. এম. নুরুল হুদা। তিনি জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৯ নভেম্বর। মনোনয়ন বাছাইয়ের শেষ তারিখ ২২ নভেম্বর। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর। ২৩ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সংসদ ভেঙে দিয়ে মেয়াদ পূর্তির পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছিল। সেজন্য তারা তফসিল পেছানোরও দাবি করেছিল। সোমবার ঐক্যফ্রন্টের ভোট পেছানোর দাবিতে ‘আপত্তি’ নেই বলে জানিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেন, ‘সকল দলের অংশগ্রহণ আশা করেছিলাম এবং তা হয়েছে, এজন্য দলগুলোকে অভিনন্দন জানাই। ঐক্যফ্রন্টসহ বিরোধী দলগুলো পুনঃতফসিলের আবেদন জানিয়েছিল, তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা পুনঃতফসিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

সূত্র : সমকাল

কমলগঞ্জে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- K
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে দুটি ফুটবল দলের অংশ গ্রহনে অনুষ্ঠিত প্রীতি ফুটবল প্রতিযোগিতার মাধ্যমে কমলগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও উপজেলার বিদায়ী নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। শনিবার (১০ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪টায় কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারী মডেল উচ্চবিদ্যালয় মাঠে কমলগঞ্জ পৌরসভা একাদশ ও আব্দুর রউফ স্মৃতি একাডেমীর মধ্যে প্রীতি ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংবর্ধিত ব্যক্তি বিদায়ী নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক।
নবাগত কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক এর সভাপতিত্বে ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ, কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান, সুজা মেমোরিয়াল কলেজ অধ্যক্ষ ম. মুর্শেদুর রহমান, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি বিশ^জিৎ রায়। অনুষ্ঠানে বিদায়ী নির্বাহী কর্মকর্তাকে ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে ক্রেস্ট ও উত্তরীয় প্রদান করা হয়। বিদায় অনুষ্ঠান উপলক্ষে কমলগঞ্জ সরকারি মডেল হাই স্কুল মাঠে কমলগঞ্জ পৌর ফুটবল একাডেমী ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ স্মৃতি একাডেমী পতনঊষার এর মধ্যে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় ৩-১ গোলে পৌর ফুটবল একাডেমী জয়লাভ করে।

মৌলভীবাজার-৪ (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেন উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি ও অধ্যাপক মো: রফিকুর রহমান

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

10

মৌলভীবাজার-৪ (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেন সাবেক চিফ হুইপ, সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ সদস্য, কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো: রফিকুর রহমান।   ৬ষ্ট বারের মতো উপাধ্যক্ষ মো: আব্দুস শহীদ এমপি শুক্রবার বিকেল ৪টায় কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল উপজেলার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থক নিয়ে বিশাল শো-ডাউন করে ঢাকার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে তিনি এই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। এ সময় তিনি সকলের দোয়া ও আশীর্ব্বাদ কামনা করেন।
মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সত্যতা নিশ্চিত করে শুক্রবার সন্ধ্যায় মুঠোফোনে সাংবাদিকদের বলেন, উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি এ প্রতিনিধিকে বলেন, জনগণের প্রত্যাশা পূরণের জন্য জনগণের স্বত:স্ফুর্ত সমর্থন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে আমি আজ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছি। এ সময় আমার সাথে কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল উপজেলার দলীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ অনলাইন ফোরামের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ সদস্য, কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো: রফিকুর রহমান শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢাকার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। এ সময় তিনি সকলের দোয়া ও আশীর্ব্বাদ কামনা করেন।
মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সত্যতা নিশ্চিত করে শুক্রবার সন্ধ্যায় কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর মোশাহীদ আলী এ প্রতিনিধিকে বলেন, তৃণমুলের দলীয় নেতাকর্মীর দীর্ঘদিনের আশা-আখাংকা পূরণের জন্য তাদের  স্বত:স্ফুর্ত সমর্থন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে আমাদের নেতা অধ্যাপক রফিকুর রহমান আজ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এ সময় জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও কমলগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো: সিদ্দেক আলীসহ দলীয় নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

কমলগঞ্জের পতনঊষার ইউনিয়নে ১১ কোটি ২৫ লক্ষ ১৪ হাজার টাকা কাজের শুভ উদ্বোধন

||  পিন্টু দেবনাথ  ||

Pic- A
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প কাজের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১১ কোটি ২৫ লক্ষ ১৪ হাজার টাকা। শনিবার (০৩ নভেম্বর) দিনব্যাপী এই উন্নয়ন কাজের শুভ উদ্বোধন করেন মহান জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ সরকারি প্রতিশ্রুতত সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।

Pic- D
উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে ছিল ৭১ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয় চাহিদা ভিত্তিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় অবকাঠামো উন্নয়ন (১ম পর্যায়) গুঞ্জরকান্দির সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণীকক্ষ নির্মাণ কাজর উদ্বোধন।

Pic-G

২৫ লক্ষ ৮২ হাজার টাকা ব্যায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২ ব্রাহ্মণউষার-কেওলার হাওড় সড়ক উদ্বোধন, ৬ কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা ব্যয় বন্যা প্রবন ও নদী ভাঙ্গন এলাকার বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ (৩য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় পতনউষার উচ্চ বিদ্যালয় ও বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন ও পতনউষার উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ একাডেমি ভবনের কাজের শুভ উদ্বোধন।

Pic-p

৩৫ লক্ষ টাকা ব্যয় গ্রামীণ মাটির রাস্তাসমূহ টেকসই ক্ষননের লক্ষ্যে হেরিং বোন বন্ড (এইচবিবি) করণ প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন, ৬৫ লক্ষ ৭৭ হাজার টাকা ব্যয় চাহিদা ভিত্তিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় অবকাঠামো উন্নয়ন (১ম পর্যায়) ধূপাটিলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণীকক্ষ নির্মাণ স্থাপন কাজের শুভ উদ্বোধন।

Pic-dd

ও  ২ কোটি ৮৯ লক্ষ টাকা ব্যায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তর (মাউশি) এর অর্থায়নে আবুল ফজল চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভবনের কাজের শুভ উদ্বোধন।

Pic-B

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম. মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, সহকারি জেলা শিক্ষা প্রকৌশলী আরিফুর রহমান খান, উপজেলা প্রকৌশলী মো: জাহিদুল ইসলাম, কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ পসভ: আরিফুর রহমান, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, পতনউষার ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমেদ বাবু, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অরূপ চৌধুরী, আবুল ফজল চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল মালিক বাবুল, শমশেরনগর এএটিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি আরিফুজ্জামান অপূ, শমশেরনগর ইউপি সদস্য শেখ রায়হান ফারুক, প্রধান শিক্ষক মো: ফয়েজ আহমদ, প্রধান শিক্ষক মিছবাউর রহমান, প্রধান শিক্ষক বিপ্লবী রানী দে, শিক্ষক মন্ডলী, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি, শিক্ষার্থী সহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।