সদ্য সংবাদ

বিভাগ: মাধবপুর

কমলগঞ্জের মাধবপুরের লঙ্গুরপার সরকারি প্রাঃ বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবন কাজের শুভ উদ্বোধন

কমলগঞ্জে অস্ত্রসহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার

Dakat
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ তিন ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৪ মার্চ)  ভোরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের লঙ্গুরপার মাসুম টিল্লা নামক গ্রামে সানুয়ারা বেগমের বাড়ী থেকে  এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলেন- সেলিম মিয়া (৩০), জসিম আহমদ (২৮) ও মন্তাজ মিয়া (২৭)। তাদের বাড়ি কমলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, কয়েকজন ডাকাত ভোর ৪টার দিকে লঙ্গুরপার মাসুম টিল্লা নামক  এলাকায় অবস্থান নিয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। খবর পেয়ে  কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) বদরুল হাসানের নেতৃত্বে সেকেন্ড অফিসার জাহিদুল ইসলাম, এস আই আজিজ, এ এস আই হেলাল ও এ এস আই হামিদ, পুলিশের সংগীয় ফোর্সদের  একটি দল সেখানে অভিযান চালিয়ে ওই তিনজনকে গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি একনলা বন্দুক, তিনটি কার্তুজ, এক রাউন্ড গুলির খোসা, দু’টি রামদা ও দু’টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) বদরুল হাসান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই তিনজনের বিরুদ্ধে শ্রীমঙ্গল থানায় ডাকাতির মামলা রয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। এছাড়া দীর্ঘদিন ধরে মৌলভীবাজার জেলার আশপাশের এলাকায় ডাকাতি করে আসছেন বলেও জানিয়েছেন তারা।

কমলগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ পুলিশ সদস্য আহত

index

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহত দুজনকে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও গুরুতর আহত একজনকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহষ্পতিবার ভোর পৌনে ৪টায় ভানুগাছ-পাত্রখোলা সড়কের মাধবপুর এলাকায়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মাইক্রোবাসে করে রাত্রিকালীন টহল দেয়ার সময় বৃহষ্পতিবার ভোর পৌনে ৪টার দিকে ভানুগাছ-পাত্রখোলা সড়কের মাধবপুর উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ব্রীজের কাছে চালক গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাছের সাথে সজোরে ধাক্কা লাগে। এ সময় কমলগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম (৩৮), কনষ্টেবল মনির হোসেন (৪০) ও কনষ্টেবল আং কাইয়ুম (৩৭) আহত হন। আহতদের কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গুরুতর আহত কনষ্টেবল মনির হোসেনকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, দুর্ঘটনার সময় গাড়ির চালকের ঘুম লেগেছিল, তাই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে নিয়োজিত উপ-পরিদর্শক জাহিদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পাত্রখোলায় উপবৃত্তি টাকা প্রধান শিক্ষক কর্তৃক আত্মসাতের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

Pic-1

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা প্রধান শিক্ষক কর্তৃক জালিয়াতি মাধ্যমে স্বাক্ষর দিয়ে উত্তোলন করে আত্মসাৎ করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভসহ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখোলা চা বাগানে। জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখোলা চা বাগানের হাজারীবাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামে বাংলাদেশ চা বাগান শ্রমিক শিক্ষা ট্রাষ্টের আওতায় ২০১৪ সালের ২য় থেকে ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি টাকা অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি দেবাশীষ চক্রবর্ত্তী শিপন উত্তোলন করে আত্মসাৎ করে আসছেন। এ বিষয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা ২২ ফেব্রুয়ারি সোমবার পাত্রখোলা বাগান ব্যবস্থাপককে অবহিত করেন। বিষয়টি প্রধান শিক্ষক জানতে পেরে দলবল নিয়ে অভিভাবকের উপর হামলা চালালে ৩ জন আহত হন। ঘটনার খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ এসআই কামালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

Pic-2

এরই জের ধরে ২৫ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার পাত্রখোলা চা বাগানের প্রাথমিক, মাধ্যমিক, কলেজ শিক্ষার্থীরা প্রধান শিক্ষকের এহেন কার্যকলাপের প্রতিবাদে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত পাত্রখোলা চা ছাত্র যুব পরিষদের উদ্যোগে পাত্রখোলা চা বাগানের কারখানার মূল গেইটের সম্মুখে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। যুব পরিষদের সভাপতি অমল গৌড় ও সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ পাল এ প্রতিনিধিকে জানান, আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বিষয়টি সমাধান না হলে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে। এ ব্যাপারে মাধাবপুর ইউপি চেয়ারম্যান পুষ্প কুমার কানু ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি আগামী শনিবার জনসম্মুখে বৈঠকের মাধ্যমে ঘটনার সুষ্টু সমাধান করা হবে। দেবাশীষ চক্রবর্ত্তী শিপন একসাথে প্রধান শিক্ষক ও বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি ২টি পদ থাকায় ২ জনের অবৈধভাবে বেতন তুলে নেন। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক ও বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি দেবাশীষ চক্রবত্তী শিপন জানান, উপবৃত্তির টাকা সুষ্ঠু ও সঠিকভাবে বন্টন করা হয়েছে। আমার উপর মিথ্যা অভিযোগ করে মানববন্ধন করা হয়। তিনি জানান, চা শ্রমিক হিসাবে বেতন ভোগ করছি এবং প্রধান শিক্ষক হিসাবে আমাকে ব্যবস্থাপক সম্মানী দিয়ে থাকেন।এব্যাপারে পাত্রখোলা বাগান ব্যবস্থাপক শামসুদ্দিন আহমদ সেলিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মুঠোফোনে জানান, শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

কমলগঞ্জে আলু ক্ষেতে পচন দিশেহারা কৃষক

 

12661891_812964892148595_1127589716220920957_n_copy[1]

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার্য় আলু ক্ষেেত পচন রোগ দেখা দিয়েছে। পচন রোগে আলু গাছ মরে যাচ্ছে। এতে ফলনহানির আশংকায় কৃষকেরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নে বিভিন্ন গ্রামে আলু ক্ষেেত গিয়ে দেখা গেছে অধিকাংশ আলু ক্ষেেত পচন রোগ আক্রান্ত হয়ে আলুগাছ পচে মরে যাচ্ছে। কৃষকরা অনুমান নির্ভর হয়ে উচ্চদামে বিভিন্ন কোম্পানীর কীটনাশক ব্যবহার করে আলু গাছ রা করতে পারছেন না। স্থানীয় আলু চাষীরা জানান, সম্প্রতি গত কয়েকদিনের শৈত্যপ্রবাহ, মেঘলা আকাশ, গুড়িগুড়ি বৃষ্টির কারণে আলু গাছে পচন রোগ দেখা দিয়েছে। চলতি মৌসুমে আলু চাষে প্রতি বিঘায় প্রায় ২০-২৫ হাজার টাকার মতো খরচ হয়েছে, যদি এখন ভালো ফলন না হয় তাহলে আর্থিক তির সম্মুখীন হয়ে আগামীতে আলু চাষের আগ্রহ হারিয়ে ফেলতে হবে। কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এই পচন রোগটাকে রোধ করতে হলে একমাত্র বায়ার কোম্পানীর সিকিউর, সিনজেটার এমিষ্টার টপ, রিডোমিল গোল্ড, স্কোর কীটনাশক দ্বারাই প্রতিরোধ করা সম্ভব। কিন্তু তাও মিলছে না কীটনাশক দোকানগুলোতে। কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন কৃষকের সাথে আলাপকালে জানা যায়, পচন রোগে ইতিমধ্যে তাদের আলু েেতর সিংহভাগ গাছ পচে নষ্ট হয়ে গেছে। একই এলাকার কৃষক তপন আহমেদ (৪৫), আসহাবুর ইসলাম শাওন (৩৫), রাধাকান্ত সিংহ(৩৬)সহ অনেকে জানান, পচন রোগে আক্রান্ত তাদের আলুেেত বিভিন্ন কোম্পানীর কীটনাশক ব্যবহার করেও সুফল পাচ্ছেন না। কৃষকেরা জানান, অনুমান নির্ভর বিভিন্ন কোম্পানীর কীটনাশক ব্যবহার করেছেন। এতে কীটনাশক ব্যবসায়ীরা লাভবান হলেও, কপাল পুড়ছে কৃষকদের আলু েেত পচন রোগে কমলগঞ্জ উপজেলার দণিাঞ্চলে মাধবপুর, আদমপুর, ইসলামপুর, আলীনগর ইউপির বিভিন্ন এলাকায় এই রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সামছুদ্দীন আহমেদ জানান, যারাই এ রোগের সমস্যার সম্মুখীন হয়ে আমাদের কাছে আসছেন আমরা তাদেরকে বায়ার কোম্পানীর সিকিউর, সিনজেটার এমিসটার টপ, রিডোমিল গোল্ড, স্কোর কীটনাশক ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছি। এতে অনেকেই উপকৃত হচ্ছেন ।

মাধবপুরে সবজি চাষ করে সাবলম্বী আসিফ

মাধবপুর (কমলগঞ্জ) সংবাদদাতা ॥
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লংগুরপার গ্রামের ফসল চাষ করে সাবলম্বি হয়েছেন আসিফ মিয়া (৩০) নামের এক দরিদ্র যুবক। শুন্য থেকে এখন লক্ষ টাকার মালিক হয়েছেন তিনি। এই সবজি চাষ করার সুবাদে নিজে যেমনি হয়েছেন সাবলম্বি তেমনি তার পরিবারেও এসেছে স্বচ্ছলতা। পূর্বে যিনি পেশায় গাড়ীচালক ছিলেন, বর্তমানে একজন স্বাবলম্বী কৃষক।  যিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এক অনুকরনীয় যুবক হিসেবে। DSC03476
স্বল্প পরিমান জমিতে ২০১৫ সালে মৌসুমী সবজি চাষ শুরু করে ধীরে ধীরে বাড়িয়ে যা এখন প্রায় ৬০ শতক জমিতে এক কৃষি খামারে পরিণত হয়েছে। একসময়ের দরিদ্র গাড়ীচালক এই যুবক কঠোর পরিশ্রম, কৃষি বিষয়ক মেধা এবং বড় হওয়ার অধ্যবসায়ী আগ্রহই পরিবর্তন এনে দিয়েছে তার জীবনের। এই স্বাবলম্বি যুবক মোঃ আসিফ মিয়ার গড়ে তোলা কৃষি খামার পরিদর্শন ও আসিকের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ৫ নং কমলগঞ্জ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড এর বাসিন্দা মোঃ মানিক মিয়া এর ছোট ছেলে মোঃ আসিফ মিয়া।
দারিদ্রতার কারণে লেখাপড়ায় এগুতে না পেরে গাড়ী চালক হিসাবে পেশাগত জীবন শুরু করেন।  এ বছর এনজিও থেকে  ঋণ নিয়ে নিজেদের বাড়ির কাছাকাছি পতিত ৬০ শতাংশ জমিতে গড়ে তোলেন সবজি চাষের কৃষি খামার।
কঠোর পরিশ্রম করে এটাকেই প্রধান পেশা হিসেবে বেছে নিয়ে এ বছর শুধুমাত্র শিম, বেগুন, লাউ, করলা, টমেটো চাষ শুরু করেন। বীজ ক্রয়, সেচ, কীটনাশক, সার, শ্রমিক মুজরী ইত্যাদিসহ সকল কাজে খরচ হয়েছে ৭০ হাজার টাকা।   শুরু থেকেই আত্মপ্রত্যয়ী যুবক আসিফ জীবন সংগ্রামে। রোদে পুড়ে আর জলে ভিজে দিনরাত পড়ে থাকতেন নিজের গড়ে তোলা কৃষি খামারে। আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। প্রথম বছর ক্ষেত্র তৈরীতে অনেক টাকা খাটানোয় লাভের অংশ একটু কম হলেও পরবর্তী বছর আরও লাভের আশা রয়েছে। এবছর সবজি চাষ করে লাভ হয়েছে প্রায় ২ লক্ষ টাকা। এই খামারে উৎপাদিত সবজি স্থানীয় ভানুগাছ, মাধবপুর, আদমপুর, শমশেরনগর, শ্রীমঙ্গল, কুলাউড়া গ্রাহকদের কাছে পাইকারী ও খুচরা বিক্রি করেছেন।
উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কনক লাল সিংহ বলেন, আসিফ একজন আগ্রহী কৃষক। প্রথমে ব¬ক মেম্বারের সঙ্গে সরজমিনে গিয়ে পরামর্শ দেই। সে মোতাবেক কাজ করায় তিনি লাভবান হয়েছে। ভবিষ্যতে যে কোন ধরনের পরামমর্শ ও সহযোগিতা দিতে তিনি প্রস্তুত। সরকারি সহযোগিতা পেলে আগামী বছর খামারের পরিধি আরও বাড়াবেন বলে তিনি জানান।  আসিফ তার খামারকে আরও বৃহৎ আকারে করে এলাকার বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান করতে চান।
শুন্য থেকে শুরু করে এখন লক্ষ টাকার মালিক হয়েছেন তিনি। এই সবজি চাষ করার সুবাদে নিজে যেমনি হয়েছেন সাবলম্বি তেমনি স্থানীয় বেকার যুবকদের মাঝে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন এক অনুকরনীয় যুবক হিসেবে।

মাধবপুরে সক্ষমতা প্রকল্পের উদ্যোগে সুশাসন ও মানবাধিকার বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

Pic---Caritas
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
কারিতাস সিলেট অঞ্চলের সক্ষমতা প্রকল্প, শ্রীমঙ্গল উপজেলা এর আয়োজনে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিনেয়র পাত্রখোলা চা বাগানের হাজারীবাগ (গারোটিলা) জপমালা রানীর গীর্জা প্রাঙ্গনে রোববার (৬ ডিসেম্বর) সুশাসন ও মানবাধিকার বিষয়ক দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। দিনব্যাপী প্রশিক্ষণে কারিতাস সিলেট অঞ্চলের সক্ষমতা প্রকল্পের জুনিয়র কর্মসুচী কর্মকর্তা (প্রশিক্ষণ ও ডকুমেন্টেশন) চয়ন চক্রবর্তী ও সক্ষমতা প্রকল্প শ্রীমঙ্গল উপজেলা এর এএফও দিলীপ কুমার দাস প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। গারো, খাসিয়া, টিপরা, চা শ্রমিক সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ২৬ জন নারী পুরুষ এতে অংশগ্রহণ করেন।

কমলগঞ্জে নারী নির্যাতন প্রতিরোধে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

444
কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
বিশ্ব নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস ২০১৫ উপলক্ষে কমলগঞ্জে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উদ্দীপন সিডস কর্মসূচীর কিশোরী সংলাপ কেন্দ্রের আয়োজনে শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে পাত্রখোলা চা বাগান সংলাপ কেন্দ্র হতে এক র‌্যালী বের হয়। র‌্যালী শেষে সংলাপ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম। স্থানীয় ইউপি সদস্য বীনা রানী দেব এর সভাপতিত্বে ও সংলাপ কেন্দ্রের এনিমেটর আসমা বেগম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার ভূমি রফিকুল ইসলাম, সদস্য কুষল চাষা। সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন উদ্দীপন সিডস কর্মসূচীর উপজেলা সমন্বয়কারী মো. ওয়াহেদুজ্জামান।

কমলগঞ্জে শিখন স্কুলের শিক্ষার্থীদের সমাপনী অনুষ্ঠান

Pic--01
কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:
কমলগঞ্জ উপজেলার পাত্রখলা চা বাগানে আরডিআরএস বাংলাদেশ পরিচালিত শিখন স্কুলের শিক্ষার্থীদের সমাপনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিদ্যালয় সম্মুখে এই সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
শিখন কর্মসূচীর মাঠ সম্বয়কারী মোশারফ হোসেনের পরিচালনায় ও স্থানীয় ইউপি সদস্যা বিনা রানী কর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সিদ্দেক আলী। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাধবপুর ইউপি চেয়ারম্যান পুষ্প কুমার কানু। বক্তব্য রাখেন ল্যার্নিং ফ্যাসিলিটেটর মোছা: শামীমা বেগম, মোফাজ্জিল আলম ও টিটিএস সালেক মিয়া। অনুষ্ঠানে মাধবপুর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে শিখন স্কুলের শিক্ষার্থীদেরকে একটি করে ফাইল প্রদান করা হয়।

মাধবপুরে ভিজিডি কার্ডের চাল ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নে দু:স্থ মহিলাদের ভিজিডি কার্ডের চাল ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুর ১টায় মাধবপুর ইউনিয়নের ১০০ ভিজিডি কার্ডধারীদের মধ্যে চাল বিতরণ করা হয়। কিন্তু এই ইউনিয়নের জন্য সংরক্ষিত প্রতি বস্তায় ৩০ কেজির স্থলে ২৫/২৬ কেজি করে পাওয়া যায়। এ নিয়ে মাধবপুর ইউনিয়নের ধলই চা বাগানের লছমী মাদ্রাজী, চান্দ্রামা মাদ্রাজী, রেবা উর্মী, পাত্রখোলা চা বাগানের আছমা বেগম, গৌরি আচার্য্য, ময়না বেগম, শালনী বেগম, ধলাইরপার গ্রামের হাওয়ারুন বেগম, ভাসানীগাঁও গ্রামের সীতারা বিবি, বনগাঁও গ্রামের রুমা বেগম, সুফিয়া বেগম, মদনমোহনপুর চা বাগানের সুইটি লোহার অনেক সুবিধাভোগীরা ওজনে কম পাওয়ায় প্রতিবাদ জানায়। ঘটনার ব্যাপারে মাধবপুর ইউপি চেয়ারম্যান পুষ্প কুমার কানু বলেন, ৩০ কেজির স্থলে এক কেজির মত চাল কম পাওয়া গেছে। ২৫/২৬ কেজি করে চাল পাওয়ার কথা সঠিক নয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইউপি সদস্য বলেন, গোডাউন থেকে বস্তাপ্রতি অন্তত তিন/চার কেজি চাল তাদের কম দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহেদা আক্তার বলেন, সরকার অতি দরিদ্রদের জন্য ভিজিডি প্রকল্পের আওতায় প্রতিমাসে ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করছে। দীর্ঘদিন ধরে এ চাল কম দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। জানতে চাইলে ইউএনও সফিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি নিয়ে সঠিক তদন্তের পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।