সদ্য সংবাদ

বিভাগ: কমলগঞ্জ

কমলগঞ্জে মিরতিংগা চা বাগানে সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

saper-kamore-mrittu
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের মিরতিংগা চা বাগানে ঘুমন্ত অবস্থায়  বিষধর সাপের কামড়ে শ্রীরাম গৌড় (৫০) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। গত বুধবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাত তিনটায় মিরতিংগা চা বাগানের গৌড় টিলা শ্রমিক বস্তিতে এ ঘটনাটি ঘটে।
জানা যায়, এ  বাগানের দক্ষিণ ফাঁড়ি বাগানের গৌড় টিলা শ্রমিক বস্তির শ্রীরাম গৌড় বুধবার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত তিনটায় একটি বিষধর সাপে ঘরে প্রবেশ করে তাকে কামড় দেয়। সাপের কামড়ে তার ঘুম ভেঙ্গে গেলে কিছুক্ষণের মধ্যে তার দেহ লীলাভ হয়ে পরে তিনি মারা যান। চা শ্রমিকদের ধারনা কিং কোবরা জাতীয় সাপের কামড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।
রহিমপুর ইউনিয়নের স্থানীয় মিরতিংগা চা বাগান ওয়ার্ড সদস্য ও বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের মনু-ধলই ভ্যালির (অঞ্চলের) সভাপতি ধনা বাউরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। ধনা বাউরী মনে করেন প্রচন্ড গরমের কারণে সাপটি চা বাগানের ঝোপ ঝাড় থেকে বের হয়ে লোকালয়ে প্রবেশ করেছে।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে প্রেমিক যুগলের বিয়ে

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- 1
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারের এক ভাড়াটিয়া বাসা থেকে এলাকাবাসী প্রেমিক যুগলকে আটক করে শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আয়াছ মাহমুদের নেতৃত্বে প্রেমিক যুগলকে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। পরে উভয় পক্ষের অভিভবাবকদের ডেকে এনে প্রেমিক যুগলের বিয়ে সম্পন্ন করা হয়েছে পুলিশের সহায়তায়। গত বুধবার রাত ৮ ঘটিকার সময় ১ লাখ টাকার কাবিন নামায় এ বিয়ে সম্পন্ন করা হয় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে। প্রেমিক যুগলরা হচ্ছে- কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ৯নং ইসলামপুর ইউনিয়নের গুলের হাওর গ্রামের মৃত বারিক মিয়ার ছেলে আব্দুল রশিদ (৩৬) ও শমশেরনগর ইউনিয়নের সিংরাউলী গ্রামের ফজলু মিয়ার মেয়ে জাবেদা আক্তার (২৫)। বুধবার রাত ৮টায় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ পরিদর্শক অরুপ কুমার চৌধুরীর উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের সম্মতিতে ১ লাখ টাকা মোহরানা সাব্যস্ত করে কাজী ঢেকে বিয়ে পড়িয়ে দেওয়া হয়। এ সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের মধ্যে মিষ্টি মুখ করানো হয়।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ পরিদর্শক অরুপ কুমার চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

কমলগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ৩০০ বান্ডিল ঢেউটিন ও নগদ ৯ লক্ষ টাকা বিতরণ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
01
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সাম্প্রতিক ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ১৫০ পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে জনপ্রতি ৩০০ বান্ডিল ঢেউটিন এবং নগদ ৬ হাজার টাকা করে মোট ৯ লক্ষ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বেলা ২টায় কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রশাসন এবং দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিভাগের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।

05
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে ও পতনঊষার ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ণ মল্লিক সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, ইতিমধ্যে কমলগঞ্জ উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ৬৫০ পরিবারের মধ্যে ১৫ লক্ষ টাকার শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

কমলগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন

02

 কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
“স্বয়ং সম্পূর্ণ মাছে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৮ উদ্বোধন হয়েছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে এ উপলক্ষে উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর এর আয়োজনে র‌্যালি, আলোচনা সভা, শ্রেষ্ঠ মৎস্যজীবিদের মধ্যে পুরষ্কার প্রদান ও উপজেলা পরিষদ পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ করা হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কমলগঞ্জ উপজেলায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮- এর শুভ উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে ও পতনঊষার ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ণ মল্লিক সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো: শাহাদাত হোসেন। এ সময় কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়।

কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

04
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের আনুষ্ঠানে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পৌরসভার ৯টি মসজিদে নগদ ২০ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বেলা ৩টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব উন্নয়ন কর্মকান্ডের শুভ উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ। এ সময় পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও মসজিদের ঈমামগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ৫৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

কমলগঞ্জে এইচএসসি ফলাফল প্রকাশ : পাশের হার ৫৯.৫০% ॥ ৪৪ জন জিপিএ ৫ ॥ একটি কলেজে কেউ পাশ করেনি

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

HSC
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল বৃহস্পতিবার সারাদেশের ন্যায় একযোগে প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলার  ৫টি কলেজ থেকে মোট পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল ২১৪৭ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পাশ করেছে ১২৭৮ জন। পাশের হার শতকরা ৫৯.৫০%। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৪ জন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে জানা যায়, এইসএসসি পরীক্ষায় কমলগঞ্জ গণ মহাবিদ্যালয় থেকে ৯৫২ জন অংশগ্রহণ করে পাশ করে ৪৪২ জন। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ জন। পাশের হার শতকরা ৪৬.৪৩%। সুজা মেমোরিয়াল কলেজ থেকে ৭৫৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৫০১ জন। পাশের হার ৬৬.৩৬%। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন। বিএএফ শাহীন কলেজ থেকে ১৮৮ জনের মধ্যে ১৮৮ জন পাশ করে। শতভাগ পাশের হারে মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৯ জন। অন্যদিকে হুরুন্নেচ্ছা খাতুন চৌধুরী কলেজ থেকে ১৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে কেউ পাশ করেনি।
কারিগরি শিক্ষায় কমলগঞ্জ গণ মহাবিদ্যালয় থেকে ৪৬ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে ৪৫ জন পাশ করেছে। পাশের হার ৯৭.৮৩%। জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ জন।
মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সফাত আলী সিনিয়র মাদ্রাসা থেকে আলীম পরীক্ষা ৬৭ জন অংশগ্রহণ করে ৪৩ জন পাশ করেছে। পাশে হার ৪৬.১৮%।

কমলগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে গুড নেইবারসের গৃহ নির্মাণ সামগ্রী বিতরণ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic -Distribution-1
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুরে সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে আর্ন্তজাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গুড নেইর্বাস বাংলাদেশ ঢেউটিনসহ গৃহ নির্মাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে। মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টায় আদমপুরস্থ একে বাংলা স্কুল প্রাঙ্গণে এসব গৃহ নির্মাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার সিডিপি’র আদমপুরস্থ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১০টি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ২৬ বান্ডিল ঢেউটিন ও গৃহ নির্মাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংস্থার মৌলভীবাজার সিডিপির প্রকল্প ব্যবস্থাপক রিমো রনি হালদার, গুড নেইর্বাস প্রতিনিধি মর্নিংটন মি. মুকুট ফ্রান্সিস হালদার, স্থানীয় ইউপি সদস্য কে, মনীন্দ্র কুমার সিংহ, সাংবাদিক শাব্বির এলাহী, মাহমুদ খাঁন ও নাইম আলী।

নারী উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখায় কমলগঞ্জ ইউএনও মাহমুদুল হক জনপ্রশাসন পদকের জন্য চুড়ান্তভাবে মনোনীত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

U.N.O Kamalgonj1
নারী উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় জনপ্রশাসন পদক-২০১৮ এর জন্য চুড়ান্তভাবে মনোনীত হয়েছেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাহমুদুল হক। জনসেবা সহজীকরন, বাল্যবিবাহ রোধ, নির্যাতিত নারী ও দুরবর্তী নারী শিক্ষার্থীদের জন্য বাইসাইকেল বিতরণসহ নারী উন্নয়নে বিভিন্ন কাজের জন্য তাকে মনোনীত করা হয়েছে।
আগামী ২৩ জুলাই ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিকভাবে মাহমুদুল হকের হাতে এই পদক তুলে দিবেন বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় নিশ্চিত করেছে।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, প্রথমে আমি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানাই। আমাদের সিলেট বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকসহ সহযোগীতাকারী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। অন্যান্য সকল কাজে তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।
এ সংবাদে কমলগঞ্জের সুধীমহল নানা ভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অভিনন্দন জানান।

কমলগঞ্জে চলন্ত ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে কিশোর অপরাধীর পলায়ন

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
সিলেট থেকে ঢাকার পূবাইলে কিশোর সংশোধনাগারে নিয়ে যাবার পথে চলন্ত আন্তনগর পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে পড়ে এক কিশোর অপরাধী পালিয়ে যায়। গত সোমবার (১৬ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৫টায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।
শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকালে আন্তনগর পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনে করে সিলেট শহরের শাহপরান এলাকার দ্ইু কিশোর অপরাধী রাসেল মিয়া (১৫) ও রেজওয়ান আহমদ (১৫)-কে ঢাকার পূবাইলে কিশোর সংশোধনাগারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পুলিশি পাহারায় তাদের নিয়ে যাবার সময় পারাবত ট্রেনটি লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাহাড়ি এলাকা অতিক্রমকালে রাসেল মিয়া নামের  কিশোর অপরাধী ট্রেনের বগির টয়লেটে যেতে চাইলে তার হাতকড়া খুলে দেয় সাথে থাকা পুলিশ সদস্য। ট্রেনের বগির টয়লেটের  দরজা খোলা থাকার সুযোগে রাসেল চলন্ত ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে পালিয়ে যায়।
এ ঘটনার পর সাথের কিশোর অপরাধী রেজওয়ানকে শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানা হাজতে রেখে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাহাড়ি এলাকায় অনেক রাত পর্যন্ত খোঁজা হলেও মঙ্গলবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বিকাল সাড়ে ৫টা) তাকে পাওয়া যায়নি।
লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জির সমাজসেবক সাজু মারছিয়াং বলেন, সোমবার সন্ধ্যার আগ থেকে বেশ রাত পর্যন্ত এ উদ্যানের বিভিন্ন স্থানে রেলওয়ে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে পালিয়ে যাওয়া কিশোর অপরাধী রাসেলকে পায়নি।
শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আবু বক্কর সিদ্দিক মুঠোফোনে এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অপরাধী কিশোর রাসেল পালিয়ে গেলেও সাথের কিশোর অপরাধী রেজওয়ান এখন রেলওয়ে থানা হাজতে আছে। পলাতক রাসেলকে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সিলেট শহরে কোন অপরাধে জড়িত বলে এই দুই কিশোরকে আদালতের মাধ্যমে ঢাকার পূবাইলে কিশোর সংশোধনাগারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

কমলগঞ্জে দিনব্যাপী ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প ও ঔষধ বিতরণ

Kamalgonj Pic Free Medical 1

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নে দুর্গতদের মাঝে বন্যা পরবর্তী দিনব্যাপী ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প চিকিৎসা সেবা ও বিনা মূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়। শমশেরনগর সোনাপুর যুব সংঘের আয়োজনে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় সতিঝিরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই মেডিক্যাল ক্যাম্প ও ঔষধ বিতরণ করা হয়।
সোনাপুর যুব সংঘের সভাপতি আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান সুজনের সঞ্চালনায় ক্যাম্প উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, সতিঝিরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালিক। এ সময় স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি আরজু মিয়া, যুবলীগ নেতা ইয়াছিল আরাফাত,জহির খান, ছাত্রলীগ নেতা নজরুল ইসলাম রাজু, সাইফুর রহমান শাওন, সাব্বির হোসাইন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দিনব্যাপী  ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পে ৫ শতাধিক রোগীর চিকিৎসা সেবা দিয়ে বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়।
দিনব্যাপী ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন ডা: মো: আবু তাহের, ডা: বিমল পাল, ডা: মো: মহিউদ্দিন খান (শাহান), ডা: চম্পালাল দে, ডা: সুজন পাল ও ডা: রাজকুমার সেন। এতে ঔষধ দিয়ে সহযোগিতা করেন খাঁন ফর্মেসী, স্মৃতি ফার্মেসী, জে,বি,এল ফার্মেসী, প্রমিলা ড্রাগ হাউস, রশীদ ফার্মেসী ও ফাহিম ফার্মেসী।