সদ্য সংবাদ

বিভাগ: কমলগঞ্জ

ইসলামপুরে প্রধান শিক্ষক মণিলাল সিংহের ১ম মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণ সভা ও স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

11215736_10203401876527959_4080190352816592412_n
ইসলামপুর প্রতিনিধি ।।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ইসলামপুর পদ্মা মেমোরিয়্যাল পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মণিলাল সিংহের ১ম মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণসভা ও ‘মণিলাল সিংহ স্মারকগ্রন্থ’ এর মোড়ক উন্মোচন শুক্রবার (১০ জুলাই) বিকেল ৪টায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান।
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ রসমোহন সিংহের সভাপতিত্বে ও “পৌরি” সম্পাদক সুশীলকুমার সিংহের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. সিদ্দেক আলী, জগৎসী গোপালকৃষ্ণ এম সাইফুর রহমান স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. নুরুল ইসলাম, ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. সোলেমান মিয়া, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া, মণিপুরী মাধ্যমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতির আহবায়ক জিতেন্দ্রকুমার সিংহ। আলোচনায় অংশ নেন প্রয়াত প্রধান শিক্ষক মণিলাল সিংহের সহধর্মিনী জয়লক্ষ্মী সিন্হা, ড. রঞ্জিত সিংহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিন্হা, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, সাংবাদিক শাব্বির এলাহী, শিক্ষক ধীরেন্দ্র কুমার সিংহ, স্বপন কুমার সিংহ, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রী রাশনা বেগম প্রমুখ। স্মরণ সভা শেষে ইসলামপুর পিএমপি উচ্চ বিদ্যালয়ের স্বনামধন্য প্রধান শিক্ষক, সকলের প্রিয় স্বজন, মনস্বিতায় দীপ্র মণিলাল সিংহের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে “পৌরী” সাধারণ সম্পাদক সুশীলকুমার সিংহের সম্পাদনায় প্রকাশিত ‘মণিলাল সিংহ স্মারকগ্রন্থ’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান সহ অতিথিবৃন্দ।
স্মরণ সভায় বক্তারা বলেন, প্রয়াত প্রধান শিক্ষক মণিলাল সিংহ ছিলেন শিক্ষার উন্নয়নে একজন নিবেদিত মহাপ্রাণ। সবসময় তার মুখে হাসি লেগেই থাকতো। এই সমাজে মণিলাল সিংহের মতো মানুষের বড় প্রয়োজন। আজ তিনি আর নেই আমাদের মাঝে কিন্তু তার কৃতকর্ম আমাদের মাঝে রয়েছে। তিনি মননে মেধায় সংগঠনে শিক্ষা প্রদানে সমান পারদর্শী ছিলেন। দেশ ও জাতি গঠনে শিক্ষক মণিলাল সিংহের ভূমিকা ছিল অতুলনীয়। প্রয়াত মণিলাল সিংহ ছিলেন একজন বিরল শিক্ষক-ব্যক্তিত্ব। তিনি ছাত্রদের মাঝে জ্ঞানের দিগন্ত উন্মোচনে অত্যন্ত পারঙ্গম ব্যক্তিত্ব ছিলেন। জীবনের সর্বক্ষেত্রে সফল মানুষ তিনি। তার চিন্তা, কর্ম, মানবীয় আচরণ গভীর ধর্মবোধ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হতো। ছাত্রদের মধ্যে জ্ঞানের নতুন দিগন্ত উন্মোচনে অত্যন্ত পারদর্শি ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তার চিন্তা, কর্ম, মানবীয় আচরণ গভীর ধর্মবোধ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হতো। সভায় বক্তারা প্রয়াত শিক্ষকের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের নানাদিক তুলে ধরেন এবং তাঁর জীবনাদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে সমাজকে আলোকিত করার আহবান জানান।
স্মরণ সভার শুরুতে শুরুতে প্রয়াত প্রধান শিক্ষক মণিলাল সিংহের আত্মার শান্তি কামনা করে ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

কমলগঞ্জে জমে উঠেছে ঈদ বাজার ॥ ভারতের ‘কিরণমালা’ আর “নরেন্দ্র মোদির পাঞ্জাবি” ক্রয় করতে ক্রেতাদের বিপনীগুলোতে ভিড়

Pic---Eid Kenakata---03

কমলকুঁড়ি প্রতিবেদক ॥
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জমজমাট হয়ে উঠেছে ঈদবাজার। ঈদকে লক্ষ্য করেই শিশু থেকে শুরু করে তরুণ-তরুণী, বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের মাঝে আনন্দের শেষ নেই। সবাই এখন নতুন জামা কাপড় সহ নানা সাজগুজের কেনাকেটার জন্য ছুটে যাচ্ছেন বড় বড় শপিংমল ও কসমেটিক্স দোকান গুলোতে। মুসলিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতরের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। ইতিমধ্যে জমে উঠেছে ঈদ বাজার। ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত বিপণি বিতানগুলো। ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে বেচাকেনা।

Pic---Eid Kenakata---02
সরজমিন দেখা যায়, গতবারের চেয়ে এবার ঈদ বাজার জমজমাট হয়ে উঠেছে। অত্যাধুনিক অভিজাত বিপনী বিতানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড়। কমলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বাহারী রঙের পোশাক, মহিলাদের সূতি ও নেট টিসু শাড়ীর প্রতি আকর্ষণ বেশী ক্রেতাদের। মেয়েদের কাপড়ের মধ্যে কিরণ মালা সবচেয়ে বেশি আকর্ষনীয়। কমলগঞ্জ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ ভানুগাছ বাজার, শমশেরনগর, মুন্সীবাজার, পতনঊষার, আদমপুর বাজারে গভীর রাত পর্যন্ত বেচাকেনা চলে। আলাপকালে কমলগঞ্জ পৌর এলাকার সন্ধানী ড্রেস কর্ণারের সত্ত্বাধিকারী অজিত সাহা সাহা, গন্ধেশ্বরী ভান্ডারের সত্ত্বাধিকারী মধুসূদন পাল জানান, গত ২ দিন ধরে বেচাকনা বাড়ছে। কমলগঞ্জ পৌরসভার ভানুগাছ বাজারের কাপড়ের দোকান ও শমশেরনগরে বহুতলা কয়েকটি বিপনী বিতান সহ বিভিন্ন কাপড়ের দোকানে এখন ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। ক্রেতাদের মধ্যে ছেলে, মেয়ে ও মহিলারাই বেশী। ঈদ উপলক্ষে বাজারে এসেছে বাহারি পোশাক। তবে এর মধ্যে ভারতীয় সিনেমা ও বাংলা সিরিয়ালের বিভিন্ন চরিত্রের নামে আসা পোশাক নিয়ে এবারও চলছে মাতামাতি। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দোকানগুলোতে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ঈদের আনন্দ বাড়িয়ে নিয়ে কেনা-কাটায় যেন উৎসবের রঙ লেগেছে।
মার্কেটগুলোতে দেশীয় পণ্যের চেয়ে ভারতীয় পণ্যে সয়লাব। ক্রেতারা বলেছেন, বাজার দখল করে রেখেছে ভারতীয় পণ্যে। দাম হাঁকানো হচ্ছে আকাশ ছোঁয়া। রেডিমেড কাপড়ের বাজারে ভারতীয় সিরিয়ালের নামে পোশাক প্রভাব ফেলেছে। এর মধ্যে চাহিদার শীর্ষে ‘কিরণমালা’ আর নরেদ্র মোদির পাঞ্জাবি। বিভিন্ন বয়সের নারীরা চোখ বন্ধ করে কিনছেন কিরণমালা আর ছেলেরা কিনছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পাঞ্জাবি।

কমলগঞ্জে বিষপানে সিএনজি চালকের মৃত্যু

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ।।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভার আলেপুর গ্রামে বিষপানে এক সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জ পৌর এলাকার আলেপুর গ্রামের এনাম উদ্দিনের ছেলে সিএনজি চালক সিরাজ উদ্দিন (২২) গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পরিবারের সবার অজান্তে বিষপান করে। তাকে সাথে সাথে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে মৌলভীবাজার সদর হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাবার পথে মঙ্গলবার রাত সাড়ে টায় তার মৃত্যু হয়। আত্মহত্যার কোন কারণ জানা যায়নি। খবর পেয়ে বুধবার সকাল ৯টায় কমলগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক লিটন চন্দ্র পাল নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে।

উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে—-উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি

DSC05573
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ।।
জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ, মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি বলেছেন, বিদ্যুৎ হচ্ছে উন্নয়নের চার্বিকাটি। একটি বড় যন্ত্র। শেখ হাসিনার সরকার গ্রামে গঞ্জে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন স্বপ্নের নয়, বাস্তবে রূপ নিতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ইতিমধ্যে নি¤œ মধ্যবিত্ত আয়ের দেশ হিসেবে বিশ্ব দরবারে স্থান লাভ করেছে। বিএনপি-জামায়াত আগুন নিয়ে সন্ত্রাস করে, মানুষ হত্যা করে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন কোনদিন পূরণ হবে না। একমাত্র নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতায় যাওয়া যাবে না। মানুষ এখন উন্নয়নের পক্ষে, শান্তির পক্ষে। উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি গত শনিবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে রহিমপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামে ১৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ১ কি:মি: বিদ্যুতায়িত লাইনের শুভ উদ্বোধন এবং পবিত্র রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ৮০০ জন গরীব দু:স্থদের মধ্যে ১০ কেজি করে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান (স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত) ইফতেখার আহমেদ বদরুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম  এস. এম. হাসনাত হাসান, এলাকা পরিচালক প্রভাষক আব্দুল আহাদ। স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা বিকাশ পালের উপস্থাপনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমদ বাবু, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, ইউপি সদস্য সেলিম চৌধুরী, বিদ্যুৎ গ্রাহক প্রদীপ কুমার রায় ও গোবিন্দ মালাকার প্রমুখ।  অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগ সভাপত্বি উপাধ্যক্ষ মো: আব্দুল শহীদ এমপি সুইস টিপে বিষ্ণুপুর গ্রামের বিদ্যুতায়নের লাইন উদ্বোধন করেন এবং গরীব দু:স্থদের মধ্যে ১০ কেজি করে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ কর্মসূচীর করেন। সবশেষে রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

কমলগঞ্জে ১১ দিনেও নির্যাতিতার মামলা গ্রহন করেনি থানা

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশেরনগরে দুই যুবক দ্বারা শারীরিকভাবে নির্যাতিত হওয়ার পর লিখিত আিভযোগ দেওয়ার ১১ দিনেও থানা অভিযোগটিকে মামলা হিসাবে গ্রহন করেনি থানা কর্তৃপক্ষ। ২০ জুন  শনিবার শমশেরনগর চাতলাপুর সড়কে আব্দুল আহাদ ও তাজ উদ্দীন নামে দুই যুবক দ্বারা শারীরিকভাবে নির্যাতিত হয়ে কমলগঞ্জ থানায় লিখিতভাবে অভিযোগ করেছিলেন অর্পনা পাল নামে এক গৃহিনী।
নির্যাতিতা গৃহিনী অর্পনা পাল (৩৫) অভিযোগ করে বলেন, একই এলাকার আব্দুল আহাদ (৩৫) ও বড়চেগ গ্রামের তাজ উদ্দীন দীর্ঘদিন ধরে তাকে নানাভাবে উত্যক্ত করছিল। ২০ জুন শনিবার  বিকাল চার ঘটিকায় আবার আব্দুল আহাদ ও তাজ উদ্দীন এসে উত্যক্ত করলে তিনি তার প্রতিবাদ করেন। ফলে উত্যক্তকারা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে (অর্পনাকে) এলোপাতাড়ি মারপিট করে আহত করে। ঘটনার পর তিনি কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। অভিযোগ দায়ের পর উল্টো নির্যাতনকারীরা নানাভাবে হুমকি প্রদর্শণ করছে। এমনকি  ঘটনাটিকে ধামাচাপা দিয়ে লোক দেখানো সামাজিক বৈঠক করে সমাধান করতে থানা কর্তৃপক্ষ গড়িমসি করছেন। ঘটনার পর থেকে তিনি অসুস্থ্য স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে আতঙ্কের মাঝে বসবাস করছেন। কমলগঞ্জ থানা মামলা না নেওয়ায় ও সামাজিক বিচারের নামে কালক্ষেপন করায় নির্যাতিতা গৃহিনী মৌলভীবাজার পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন।
নির্যাতিত হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে কমলগঞ্জ থানার ওসি মো: এনামুল হক বলেন, সরেজমিন তদন্তের জন্য শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক মতিউর রহমানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক মতিউর রহমান বলেন, তদন্তক্রমে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলেও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সামাজিক সমাধানের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন। এখন থানার ওসি অভিযোগটিকে মামলা হিসাবে গ্রহন করে এফআরআই করলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। একমাত্র থানার ওসি এফআরআই করতে পারেন। এখানে উপ-পরিদর্শকের কোন ক্ষমতা নেই।
অভিযোগ সম্পর্কে প্রধান অভিযুক্ত আব্দুল আহাদ মুঠোফোনে বলেন, বৃহস্পতিবার কমলগঞ্জ থানায় বসে এ ঘটনার সামাজিক সমাধান হয়ে গেছে।
তবে থানার ওসি মো: এনামুল হক ও শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক এ ঘটনার সামাজিক কোন সমাধান হয়নি বলে জানান।

দৈনিক আমাদের অর্থনীতির মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি হিসাবে নিয়োগ পেলেন সোহেল রানা

SOHEL RANA

দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন সোহেল রানা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার কমলগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ১লা জানুয়ারী ২০১৫ইং থেকে মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করে আসার পর গত ১জুন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি সম্মেলনে যোগদান করেন। গত ৩০ জুন সোহেল রানা মৌলভীবাজার জেলা

কমলগঞ্জের চৈত্রঘাট এলাকায় সিপি কোম্পানী কর্তৃক পরিবেশ দুর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন

Pic-2
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
দূর্ষণ মুক্ত পরিবেশ চাই সুস্থ নিঃশ্বাসে বাঁচতে চাই এই শ্লোগানে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে চৈত্রঘাট এলাকায় সিপি কোম্পানী কর্তৃক পোল্ট্রী হ্যাচারীর ছড়ানো দূর্গন্ধ ও রোগ বালাই থেকে মানব সম্পদ রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।
মঙ্গলবার (৩০ জুন) বেলা ১১টায় চৈত্রঘাটস্থ সিপি কোম্পানীর সম্মুখে স্থানীয় ছয়কুট, বড়চেগ, জগন্নাথপুর, প্রতাপী, লক্ষীপুর, চৈত্রঘাট গ্রামবাসীসহ কৃষক, শ্রমিক সর্বস্তরের জনসাধারণের আয়োজনে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। প্রায় ঘন্টা খানিক এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন এলাকাবাসীর পক্ষে শহীদ উল্লাহ, অশোব বিজয় দেব কানুঙ্গো কাজল, আজির উদ্দিন, আজমত উল্লাহ প্রমুখ। শত শত গ্রামবাসী মুন্সীবাজার- মৌলভীবাজার রাস্তার চৈত্রঘাট এলাকায় রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

 

Pic-1

চা শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ছুটির মজুরির দাবিতে : কমলগঞ্জের বিভিন্ন চা বাগানে শ্রমিক প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
দৈনিক ৬৯ টাকা মজুরিতে দেশের চা-শ্রমিকরা জীবন জীবিকা নির্বাহ করে চললেও তাদের সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি প্রদান করা হয় না। চা শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি দাবিতে বাগান ব্যবস্থাপক বরাবরে আবেদন করে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের বিভিন্ন চা বাগানে শ্রমিকরা সভা করেছেন।
চা বাগান শ্রমিকরা জানান, চা শ্রমিকরা সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি, কল্যাণ তহবিল ও অংশগ্রহণ তহবিলের সুযোগ সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত রয়েছেন। সপ্তাহে ৬ দিনের মজুরি হিসেবে তাদের ৪১৪ টাকা প্রদান করা হয়। অথচ ২০১৩ সালের সংশোধিত শ্রম আইনের ১০৩ (গ) ধারা মোতাবেক সকল শ্রমিকদের ছুটির দিনের মজুরি প্রদান বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আলীনগর চা-বাগানের রূপনারায়ন কৈরী, সজল বাক্তি, রণজিৎ নুনিয়াসহ কয়েকজন শ্রমিক জানান, তারা ছুটির দিনের মজুরি প্রদানের জন্য গত ১৪ জুন বাগানের ব্যবস্থাপক বরাবর লিখিত আবেদন পেশ করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন চা বাগানের শ্রমিকরা আইনিভাবে প্রাপ্য সুবিধার জন্য সংশ্লিষ্ট বাগান ব্যবস্থাপক বরাবর আবেদন করা হচ্ছে। এছাড়াও গত কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিকভাবে শ্রমিকরা শমশেরনগর, আলীনগর, সুনছড়া, ডবলছড়া চা বাগানে এই দাবি আদায়ে সভা করেছেন। গত বুধবার বিকাল ৩টায় আলীনগর চা বাগানে, বৃহস্পতিবার শমশেরনগর চা বাগানে সভায় চা শ্রমিক সংঘের আহবায়ক রাজদেও কৈরী, রূপনারায়ন কৈরী, সীতারাম বীন, গৌরি রানী কৈরী, লছমি রানী রাজভর বক্তব্য রাখেন। রোববার ডবলছড়া ও সোনছড়া চা বাগানে শ্রমিক প্রতিনিধিদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় চা শ্রমিক সংঘের আহবায়ক রাজদেও কৈরী, রূপনারায়ন কৈরী, লছমি রানী রাজভর, সুখরাম নায়েক, দিবা শুক্ল বৈদ্য ও ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সম্পাদক রজত বিশ্বাস বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা বলেন, বিভিন্ন সেক্টরের শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি পেলেও দীর্ঘ দিন ধরে চা-শ্রমিকদের মজুরি ৬৯ টাকায় আটকে আছে। অথচ ২০১৩ সালের সংশোধিত শ্রম আইনে সকল শ্রমিকদের ছুটির দিনের মজুরি প্রদান বাধ্যতামূলক করা হলেও চা শ্রমিকরা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত। শ্রম আইন-২০১৩ অনুযায়ী সাপ্তাহিক ছুটির দিনের মজুরি প্রদানের জন্য তারা বাগান কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করেছেন এবং একই সাথে সভা-সমাবেশ করে কর্তৃপক্ষ বরাবরে দাবি জানাচ্ছেন।

কমলগঞ্জে আব্দুন নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাষ্টের উদ্যোগে দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান

Pic-1
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আব্দুন নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাষ্ট ইউ.কে এর উদ্যোগে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি বাবদ শিক্ষাবৃত্তি ও এম, এ, সবুর পাঠাগারে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। সোমবার (২৯ জুন) দুপুর ১টায় উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা। আব্দুন নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাষ্টের ট্রাষ্টি বোর্ড সদস্য রিপন ইসলাম ময়নুনেল সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ ও  ট্রাষ্টের সমন্বয়কারী মিজানুর রহমান মিষ্টারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান (স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত) ইফতেখার আহমেদ বদরুল।

11667480_1604412426506308_4549664605028946948_n

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ’র সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন, প্রেসক্লাব সভাপতি এম, এ, ওয়াহিদ রুলু, উপজেলা স্কাউটস সম্পাদক মোশাহীদ আলী, প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদুল হক স্বপন, এম, এ, সুবর পাঠাগারের পরিচালক সাংবাদিক শাব্বির এলাহী, নারীনেত্রী শেখ মনোয়ারা, পতনঊষার ইউপি সদস্য সদস্য নারায়ণ মল্লিক সাগর প্রমুখ। অনুষ্ঠানে আব্দুন নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাষ্ট ইউ. কে এর পক্ষ থেকে কমলগঞ্জের ৬ জন দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে কলেজে ভর্তি ও বই-খাতা কেনার জন্য নগদ ১৫ হাজার টাকা ও আদমপুর এম, এ, সবুর পাঠাগারের উন্নয়নে নগদ ৬ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

11026208_1604443503169867_869101212084968875_n
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমলগঞ্জ নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় আর্থিক সহায়তা সহ সমাজকল্যাণ মূলক বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য আব্দুন নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাষ্ট কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষ্যতে এই কর্মকান্ড অব্যাহত রাখার আহবান জানান।

কমলগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই দোকানের জরিমানা

11181213_10207624443836945_8953905931049868914_n
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা সদরের ভানুগাছ বাজারের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দুই মোদী দোকানীর ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সোমবার (২৯ জুন) বেলা দুইটায়  নির্বাহী হাকিম ও কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ আদালত পরিচালনা করেন।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, নির্বাহী হাকিম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে ভানুগাছ বাজারের  মোদী দোকানী  জয়ন্ত পালের  দোকানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেমাই রেখে বিক্রির দায়ে নগদ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।  পার্শ্ববর্তী  স্বর্ণজ্যোতি পালের দোকানে কিছু মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য থাকায় ও ইউনানী ঔষধের নামে “ সোলারজিন পিন” নামক এনার্জি পানীয় বিক্রির দায়ে নগদ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
নির্বাহী হাকিম কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা আদালত পরিচালনা করে দুই দোকানীর জরিমানার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এটি রমজান মাসের চলমান একটি কার্যক্রম। তিনি আরও বলেন সোলারজিন পিন নামক পানীয়টি এনার্জি পানীয় আদলে হলেও মাদক বলে মনে হয়েছে।