সদ্য সংবাদ

বিভাগ: মুন্সীবাজার

কমলগঞ্জ সমিতি মৌলভীবাজার এর উদ্যোগে কমলগঞ্জে সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

54
মৌলভীবাজারে কমলগঞ্জে সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ালো কমলগঞ্জ সমিতি মৌলভীবাজার। এছাড়া ইসলামপুর ইউনিয়নের কাঁঠালকান্দি গ্রামে বন্যার পানিতে একই পরিবারের পিতা-পুত্র মারা যাওয়ায় তাদের পরিবারের একমাত্র মেয়েকে সমিতির পক্ষ থেকে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়।

শনিবার (৭ জুলাই) উপজেলার তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের হল হল রুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ২০টি পরিবারকে জনপ্রতি নগদ ৩০০০/- (তিন হাজার) টাকা করে পুনর্বাসন সহায়তা প্রদান করা হয়।

55

এসময় উপস্থিত ছিলেন  সমিতির উপদেষ্টা সাবেক সিভিল সার্জন ডাঃ শফিক উদ্দিন আহমদ,  এডভোকেট সমর কান্তি দাশ চৌধুরী, সমিতির সভাপতি  ডাঃ পদ্ম মোহন সিনহা, সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহাবুদ্দিন আহমদ, তেতইগাও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি মো: আনোয়ার হোসেন, প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মতিন, মোঃ নূরুল হক,  এম এ কাউসার, তোফায়েল আহমদ, কৃষ্ণ কুমার প্রমুখ।

আন্ত:নগর ট্রেনে হিজড়াদের চাঁদাবাজী : যাত্রীরা নাজেহাল : পুলিশ নিরব

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Untitled-1
আন্ত:নগর ট্রেন যোগে সিলেট থেকে পরিবার পরিজন নিয়ে আসছিলাম কমলগঞ্জ যাওয়ার উদ্দেশ্যে। ট্রেনটি মাইজগাঁও ষ্টেশনে আসার পর ৪/৫ জনের একদল মহিলা (হিজড়া) বিভিন্ন যাত্রীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করছে।  কেউ কেউ টাকা দিয়ে দিচ্ছেন।   আবার কেউ কেউ মাফ করেন বলছেন।   যারা ৫ থেকে ১০ টাকা দিচ্ছেন তাদের টাকা নিচ্ছে না। তাদের দাবী ২০/৫০ টাকা।   কোন কোন যাত্রী মাফ করেন বলছেন তাদের তো আর কোন গতি নেই। ভাই কেন দিচ্ছে না ? বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গি।   গায়ে হাত দেয়া।   অশ্লীন আচরণ।   সবকিছু মিলে যেন এক বিরক্তিকর ভাব।   পরিবার পরিজনের সামনে হিজড়াদের এমন আচরন দেখে লজ্জ্বায় মাথা নত হয়ে যাচ্ছে।  আর এদিকে নিরাপত্তা পুলিশ যাওয়া আসা করছে কিন্তু নিরব ! এমনটাই বললেন  কমলগঞ্জের এক জনৈক যাত্রী।
প্রতিদিন এভাবে যাত্রীরা হিজড়াদের কাছে নাজেহাল হলে দেখার কেউ নেই।  আন্ত:নগর ট্রেনে এমন পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা টহল  পুলিশ ও  টিটিরা নিরব ভূমিকা পালন করছেন।  বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আমলে নিয়ে  দ্রুত গতিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন এই প্রত্যাশা সচেতন মহলের।

সংবর্ধনা

সংবাদদাতা

Ram
মৌলভীবাজারে কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখোলা চা বাগানের বেসরকারি শিক্ষক-শিক্ষিকাদের আয়োজনে সদ্য সমাপ্ত চা শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনে বিজয়ী ব্যক্তিদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।   শুক্রবার (৬ জুলাই) বেলা ১১টায় পাত্রখোলা চা বাগানের অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রামভজন কৈরী।   বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মনু-ধলই ভ্যালীর সভাপতি ধনা বাউরী।   অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পাত্রখোলা চা বাগানের পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি দেবাশিস চক্রবর্তী সিপন, বাঘাছড়া চা বাগান সভাপতি রাখাল গোয়ালা,    পদ্মছড়া চা বাগান সভাপতি কৃষ্ণলাল দেশোয়ারা,  কুরমা চা বাগান সভাপতি  নারদ পাশী,  মদনমোন পুর চা বাগান সভাপতি উমাশংকর গোয়ালা, মাধবপুর চা বাগান সভাপতি সাধুরাম দাস ,  চাম্পারায় চা বাগান সভাপতি সংকর বোনার্জ।
আলোচনায় বক্তরা বলেন চা বাগানের বেসরকারি স্কুল গুলোতে এখনো শিক্ষক, শিক্ষিকারা তাদের মূল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত রয়েছে  তারা তাদের মূল অধিকার পাওয়ার দাবি জানিয়েছেন অতিথিদের কাছে।    অতিথিরা বলেন, আপনাদের সুযোগ সুবিধার জন্য আমরা প্রতিটি চা বাগানের সভাপতিদের নিয়ে আলোচনা করব এবং  চা বাগানের ম্যানেজার এর সাথে কথা বলে আমরা আপনাদের মূল অধিকার টুকু আদায় করার চেস্টা করব।

লাউয়াছড়ায় শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- L
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ভিতর খাসিয়া পুঞ্জি কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আদিবাসী খাসিয়া শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়। শুক্রবার (৬ জুলাই) সকাল ১০টায় লাউয়াছড়া যুব সংঘের উদ্যোগে এ বিদ্যালয়ে শিক্ষা উপকরণ হিসাবে খাতা, কলম, কাঁঠ পেন্সিল ও বই বিতরণ করা হয়।
লাউয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জি যুব সংঘের সভাপতি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্র বিজয় সুছিয়াং-এর সভাপতিত্বে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সদস্য জসিসপামথেট, সেরেন্দীপ পামথেট, খাসি সোসিয়্যাল কাউন্সিলের তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সাজু মারছিয়াং ও স্কুর শিক্ষিকা রোজী।

পতনঊষারে বন্যা দুর্গতদের সেবায় জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (এনডিএফ)-এর চিকিৎসা শিবির

Pic- NDF
কমলকুঁড়ি রিপোর্
‘বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ান’-এই আহবানে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (এনডিএফ)-এর মৌলভীবাজার জেলা কমিটির উদ্যোগে শুক্রবার (৬ জুলাই) সকাল ১০ টায় কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার এলাকার শ্রীসূর্য সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এক  চিকিৎসা শিবির পরিচালনা করা হয়। মৌলভীবাজার জেলার সাম্প্রতিক ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণের জন্য বিনামূল্যে পরিচালিত এই চিকিৎসা শিবিরে চিকিৎসক হিসেবে উপস্থিত হয়ে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের নাক কান গলা বিভাগের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ডা. এম জাহাঙ্গীর হোসাইন। তাঁকে সহায়তা করেন মেডিক্যাল সহকারী  প্রিকা দাশ,  এনডিএফ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ:সাধারণ সম্পাদক ফার্মাসিস্ট মৃগেন চক্রবর্তী ও স্বাস্থ্য সহকারী এইচ এফ মতিউর রহহমান। ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের নাক কান গলা বিভাগের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান বিগ্রেডিয়ার জেনারেল(অবঃ) ডা. এম জাহাঙ্গীর হোসাইনসহ সহকর্মীরা আগত ৩০০ রোগীকে দেখে পওে বিনা মূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রকাশ দত্ত, মৌলভীবাজার কমিটির সভাপতি কবি শহীদ সাগ্নিক, সাধারন সম্পাদক রজত বিশ্বাস,এনডিএফ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য প্রকাশ দত্ত, সাংবাদিক নুরুল মোহাইমিন (মিল্টন), অমলেশ শর্ম্মা, কৃষক নেতা রমজান আলী ও ফটিকুল ইসলাম (রাজু)।

পতনঊষারে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- MP
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সিলেটস্থ মৌলভীবাজার সমিতির উদ্যোগে বন্যা দুর্গতদের জন্য ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।  শুক্রবার (৬ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় পতনউষার ইউনিয়নের আহমদনগর দাখিল মাদ্রাসায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে দিনব্যাপী এই ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন মৌলভীবাজার-৪ আসনের সাংসদ ও সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি। সিলেটস্থ মৌলভীবাজার সমিতির সভাপতি দেওয়ার তৌফিক মজিদের সভাপতিত্বে ও মেডিক্যাল ক্যাম্প সমন্বয়কারী কমরেড সিকান্দর আলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের  সাবেক রেজিষ্টার অধ্যাপক জামিল আহমদ চৌধুরী, সাবেক সিভিল সার্জন ডা: শফিক উদ্দীন আহমদ,অধ্যাপক ডা: মৃগেন দাস চৌধুরী, সিলেটস্থ মৌলভীবাজার সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: রোস্তম খান,অর্থ সম্পাদক মো: নুরুল হক (সোহেল), কার্যকরী সদস্য সৈয়দ মহসিন হোসেন, আব্দুস শুকুর ও সমাজ সেবক ইমতিয়াজ আহমদ বুলবুল।
অনুষ্ঠানে বন্যা দুর্গত ৩ শতাধিক রোগীর চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।

মুন্সীবাজারে বাবুল মাষ্টার স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic - B
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আহমদনগর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক বাবুল মালাকার মৃত্যুতে এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার দুপুরে (৬ জুলাই) উপজেলার মুন্সীবাজার ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের আয়োজনে স্বর্গীয় বাবুল মালাকারের হরিস্মরণস্থ নিজ বাড়ীতে ডা: সারদা মল্লিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন মুন্সীবাজার পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নারায়ন পাল, সহসভাপতি বীরেন্দ্র মালাকার, পতনঊষার পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নারায়ন মল্লিক সাগর, সাংবাদিক পিন্টু দেবনাথ, ইউপি সদস্য সুনীল মালাকার, ব্যবসায়ী মিশন দাস, বিনয় চক্রবর্তী, দিপক দত্ত, সুজিত ধর, নিখিল মালাকার, উপেন্দ্র কর প্রমুখ।
বক্তরা বাবুল মালাকারের কর্মময় জীবন সম্পর্কে তুলে ধরে বলেন, তিনি শুধু শিক্ষক ছিলেন না। একজন সংস্কৃতিমনা মানুষ ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা পূরণ হওয়ার নয়।

কমলগঞ্জে গুড নেইবারস এর বেইজড্ গণিত প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- Good N
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আদমপুরে ১২টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোট ১৩৯ জন ৫ম শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে গণিত বিষয়ে জড়তা ও ভয় দূর করার জন্য ও গণিত বিষয়কে একটি মজার বিষয় করে তাদের কাছে উপস্থাপন করার জন্য ¨  Be the Master of math ’’ এই শ্লোগানের উপর ভিত্তি করে CDP Base Math Maestro প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার সিডিপি’র উদ্যোগে বৃহষ্পতিবার (৫ জুলাই) সিডিপির কার্যালয়ে প্রথমে ছেলে মেয়েদেরকে পরীক্ষা নেয়া হয় গণিতের সুত্র কে কত বেশী লিখতে পারে এবং সৃজনশীল প্রশ্নের মাধ্যমে ১৩৯ জনের মধ্য থেকে ১৫ বিজয়ী নির্ধারন করা হয়। গুড নেইবারস বাংলাদেশ মৌলভীবাজার সিডিপির প্রকল্প ব্যবস্থাপক মি: রিমো রনি হালদারের সভাপতিত্বে এ্যাডুকেশন ও প্রটেকশন অফিসার মি: মর্নিংটন মৃ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করেন কমলগঞ্জ উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার জয় কুমার হাজরা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তেতইগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যাযের প্রধান শিক্ষক মো: নূর উদ্দিন এবং কমলগঞ্জ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: সালাউদ্দিন। পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয় প্রাইজ বন্ড।

কমলগঞ্জে সংসদ সদস্যের ঐচ্ছিক তহবিলের আর্থিক সহায়তা

0001
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য মো: আব্দুল মতিনের ঐচ্ছিক তহবিল থেকে কমলগঞ্জ উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের দরিদ্র ৪০ পরিবারের মাঝে ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার (৫ জুলাই) সকাল ১১টায় কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভাকক্ষে এ আর্থিক সহায়তা বিতরণ করা হয়।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে আর্থিক সহায়তা প্রদানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমদ, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মালিক বাবুল), আদমপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া ও সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক জানান, মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য মো: আব্দুল মতিনের ঐচ্ছিক তহবিল থেকে শমশেরনগর, আলীনগর, আদমপুর ও ইসলামপুর ইউনিয়নের দরিদ্র ৪০ পরিবারের মাঝে নগদ ৩ হাজার ২শত টাকা করে মোট ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

কমলগঞ্জে সাংবাদিক শাহীনের ব্রাজিলিয়ান বাড়ি যেন এখন পর্যটন স্থান!

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

brazil 2 copy

ব্রাজিল ফুটবল দলের সমর্থক মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের সাংবাদিক শাহীন আহমেদের বাড়ি এখন স্থানীয়ভাবে ব্রাজিলিয়ান বাড়ি হিসেবেই পরিচিত। বাড়ির দিকে তাকালেই চোঁখে পড়বে শুধু ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা। ওই বাড়িতে এখন শোভা পাচ্ছে ব্রাজিলের শতাধিক জাতীয় পতাকা। টিন দিয়ে করা বাড়ির সীমানায় রং দিয়ে অংকন করা হয়েছে ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা। প্রতিদিন শত শত ব্রাজিল সমর্থকের ছবি উঠার স্থানে পরিণত হয়েছে মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের কামুদপুর গ্রামের শাহীন আহমেদের বাড়ি।

brazil 1 copy
বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় শোভা পাচ্ছে পছন্দের দলের জাতীয় পতাকা। সারা দেশের ন্যায় কমলগঞ্জ উপজেলায়ও টাঙ্গানো হয়েছে পছন্দের দলের জাতীয় পতাকা। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী শোভা পাচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার জাতীয় পতাকা। শমশেরনগর-শ্রীমঙ্গল সড়কের নিকটবর্তী কামুদপুর গ্রামে অবস্থিত ব্রাজিল ফুটবল দলের সমর্থক কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমান যুগ্ম আহবায়ক সাংবাদিক শাহীন আহমেদ এর বাড়ি। মেইন সড়ক থেকে তার বাড়ির উঠান পর্যন্ত রাস্তার দু পাশে টাঙ্গানো রয়েছে শতাধিক ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা।

সাংবাদিক শাহীন আহমেদ জানান, ছোট বেলা থেকেই তিনি ব্রাজিল ফুটবল দলের সমর্থক। প্রতি বছর বিশ্বকাপ আসলে এভাবেই নিজ বাড়িতে ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা টাঙ্গান। এ বছর তার ছোট ভাই ক্রিকেটার বাবলু আহমেদ এর উৎসাহে পুরো বাড়িতে ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা টাঙ্গিয়েছেন। পাশাপাশি টিন দিয়ে করা বাড়ির সীমানায় রং দিয়ে অংকন করা হয়েছে ব্রাজিলের জাতীয় পতাকা।

7
পতাকা টাঙ্গানোর পর থেকেই প্রতিদিন শত শত ব্রাজিল সমর্থকরা তার বাড়িতে এসে সেলফি তুলছেন। কখনো দল বেঁধে, কখনো একা একা ব্রাজিল সমর্থকদের আনাঘোনা দেখা যায় তার বাড়িতে। ব্রাজিল ফুটবল দলের প্রতি ভালবাসা থেকেই তিনি এভাবে বাড়িকে সাজিয়েছেন।

জানা যায়, মৌলভীবাজার জেলার মধ্যে সাংবাদিক শাহীন আহমেদের বাড়িটি এখন ব্রাজিলিয়ান বাড়ি হিসেবেই পরিচিত। তার বাড়িতে ছবি উঠাতে এসে অনেককেই আনন্দ উল্লাস করতে দেখা যায়। ব্রাজিলের খেলার দিন বাড়ির সামনে দোকানে সকল ব্রাজিল সমর্থকরা একত্রিত হয়ে খেলা উপভোগ করেন।