সদ্য সংবাদ

বিভাগ: মুন্সীবাজার

কমলগঞ্জে সাহিত্য আড্ডা ও সুধী সমাবেশ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic-1
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পতনঊষার উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের দাতা পরিবারের সদস্য, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী, কবি, গল্পকার, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জ্যোৎস্না খান এর স্বদেশ আগমন উপলক্ষে সাহিত্য আড্ডা ও সুধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২১ জুলাই) বেলা ১১টায় উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের জোনাকী কমিউনিটি সেন্টারে ০৬ নং ওয়ার্ডবাসীর আয়োজনে প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ন মল্লিক সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পতনঊষার ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমেদ বাবু।

Pic-2

সাহিত্য আড্ডা ও সুধী সমাবেশে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন কমলকুঁড়ি পত্রিকার সম্পাদক পিন্টু দেবনাথ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তি হিফজুর রহমান বক্স, কবি জয়নাল আবেদীন, প্রধান শিক্ষক ফেরদৌস আহমদ, প্রধান শিক্ষিকা বিপ্লবী দে, প্রধান শিক্ষিকা মনোয়ারা বেগম, সমাজসেবক তোয়াবুর রহমান তবারক, আবুল বশর জিল্লুল, রুমী আক্তার ও  কবি জ্যোৎস্না খান। ছাত্রনেতা মিতুল খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ০৬নং ওয়ার্ডবাসীর পক্ষ থেকে ০৬নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ন মল্লিক সাগর কবি জ্যোৎস্নাকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়া হয়।

কুলাউড়ায় বন্যা ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Kamalgonj Pic Free Medi
বন্যা পরবর্তী চিকিৎসা সেবা হিসাবে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী শরীফপুর ইউনিয়নে সাড়ে ৩ শত রোগীকে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প করে চিকিৎসা সেবা ও বিনা মূল্যে ঔষধ প্রদান করা হয়। শুক্রবার (২০ জুলাই) শরীফপুর ইউনিয়নের আমতলা বাজারে শরীফপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে সিলেটস্থ মৌলভীবাজার সমিতির উদ্যোগে এ ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প পরিচালনা করা হয়।
মৌলভীবাজার সমিতি, সিলেট-এর সভাপতি দেওয়ান তৌফিক মজিদ লায়েকের সভাপতিত্বে ও অর্থ সম্পাদক মো: আলীম উদ্দীন (মান্নান)-এর সঞ্চালনায় ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন  মৌলভীবাজার সমিতি সিলেট-এর উপদেষ্ঠা অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার কায়ছার আহমদ হায়দরী, ডা: মামুন পারভেজ, সাধারন সম্পাদক রোস্তুম খান, নোমান আহমদ হায়দরী, এখলাছ আহমদ হায়দরী, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক সুলেমান খান, শরীফপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন (চিনু), শরীফপুর ইউনিয়ন আওয়ামলীগ সাধারণ সম্পাদক ইউপি সদস্য মখদ্দছ আলী, সৈয়দ মহসিন হোসেন।
মেডিক্যাল ক্যাম্পে শরীফপুর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ড থেকে আগত ৩৫০ জন রোগীকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেন ডা: মামুন পারভেজ, ডা: বিজন চন্দ্র দেব, ডা: জাবেদ মিনহাজ সিদ্দিকী, ডা: আতিফ আফজাল ও নেপালী চিকিৎসক ডা: রওশন জয়শাদ।

কমলগঞ্জে হিট স্ট্রোকে একজনের মৃত্যু ॥ প্রচন্ড খরতাপে জনজীবন বিপর্যস্ত ॥ নানা রোগের আশংকা

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Untitled-1
গত কয়েকদিন ধরে সৃষ্ট খরতাপে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পেড়েছে। খরতাপে হিট স্ট্রোকে শমশেরনগর বাজারে ১ মোরগ ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টায় শমশেরনগর মোরগ বাজার এলাকায় খরতাপের কারণে আব্দুল মন্নান ওরপে মন্নাই নামের (৫৭) এক ব্যক্তি আকসিব¥কভাবে মাটিতে ঢলে পড়ে মারা যায়। সে শমশেরনগর উত্তর রাধানগর গ্রামের মৃত রমজান আলী ওরপে রঙ্গাইর ছেলে।
গত ১৮ জুলাই বুধবার থেকে  কমলগঞ্জে বাতাস বিহিনভাবে প্রচন্ড খরতাপ বইছে। বাতাস বিহিনভাবে প্রচন্ড খরতাপে শমশেরনগর মাছবাজার সংলগ্ন মোরগ বাজারে মোরগ ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান ওরফে মন্নাই (৫৭) আকস্মিকভাবে মাটিতে ঢলে পড়ে। তাকে দ্রুত মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
প্রচন্ড খরতাপের কারণে গত ৩ দিন ধরে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী উপস্থিতি কমায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শনিবার (২১ জুলাই) থেকে সকালে ক্লাস পরিচালনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। গরমের কারণে খেটে খাওয়া মানুষজন বাইরে রোদের মধ্যে কাজ করতে পারছেন না।
বিভিন্ন চা বাগান সূত্রে জানা যায়, প্রচন্ড খরতাপের কারণে চা শ্রমিক বিশেষ করে নারী চা শ্রমিকরা প্লান্টেশন এলাকায় স্বাভাবিকভাবে চা পাতা উত্তোলন করতেও পারছেন না। কাজের মধ্যে অনেক শ্রমিক অসুস্থ্য হয়ে পড়ছেন। বাসা বাড়িতে বৈদ্যুতিক পাখার বাতাসও গরম অনুভূত হচ্ছে। ফলে বসত ঘর থেকে মানুষজন বাইরে রাস্তার ধারে গাছ তলায় বসে থাকতেও দেখা যায়।
খরতাপের মাঝে মানুষজন একটু স্বস্তির আশায় ব্যাপকহারে ঠান্ডা পানীয় বিশেষ করে বাজারে খোলা ভ্যান গাড়ি থেকে নানা রং মিশ্রিত ও বরফযুক্ত লেবুর শরবত পান করছেন।
সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা: আবু সালেহ মো: সায়েম ও একই হাসপাতালের শিশু বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা: যোগিন্দ্র সিংহ বলেন, প্রচন্ড খরতাপে ডায়রিয়াসহ পেটের পীড়ার প্রকোপ দেখা দেবে বেশী করে। চিকিৎসকদ্বয় আরও বলেন, এ খরতাপে হিট স্ট্রোক হয়ে মারা যাওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। এজন্য সবদিক দিয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

শমশেরনগরে দুটি বাসার ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Untitled-1
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে একটি ভবনের দোতলার জানালার গ্রীল কেটে প্রবেশ করে তৈরী খাদ্যে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে দুটি বাসার লোকজনকে অবচেতন করে নগদ অর্থ,স্বর্ণালংকার, পাসপোর্ট,মুঠোফোনসহ ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নেয় দুর্বৃত্তরা।  গত বুধবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাত ১টায় শমশেরনগর ইউনিয়নের শিংরাউলী গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
দুটি বাসার আক্রান্তদের স্বজন ও শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যা রাতে কোন এক সুযোগে দুর্বৃত্তরা শিংরাউলী গ্রামের আব্দুল হামিদ চৌধুরীর ভবনের দোতলায় উঠে ভাড়াটে নিত্যানন্দ দেবনাথ ও সৈয়দ তৈয়ব উদ্দীনের বাসার রান্না ঘরে তৈরী খাবারে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে রাখে। এ দুটি বাসার লোকজন খাবার খেয়ে গভীর ঘুমে মগ্ন থাকলে গভীর রাতে রান্না ঘরের জানালার গ্রীল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে। দুর্বৃত্তরা ঘরের ভিতর প্রবেশ করে  নিত্যানন্ত দেবনাথের আলমারী ভেঙ্গে ভারতীয় ভিসাযুক্ত দুটি পাসপোর্ট, নগদ দেড় লাখ টাকা, ৩টি মুঠোফোন ও ৮ ভরি ওজনের স্বণৃালংকার লুটে নেয়।
একইভাবে দুর্বৃত্তরা সৈয়দ তৈয়ব উদ্দীনের বাসার আলমারী ভেঙ্গে তছনছ করে ৩টি মুঠোফোন, নগদ ২০ হাজার টাকা ও ৬ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। খাদ্যে মেশানো ঘুরের ঔষদের প্রতিক্রয়ায় দুটি বাসার কেউ কথা বলতে পারেননি। তবে ভবন মালিক আব্দুল হামিদ চৌধুরী বলেন, এ ধরের অভিনব প্রথায় দু:সাহসিক চুরি এ এলাকায় এর আগে কখনও ঘটেনি। ঘটনাটি স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) অরূপ কুমার চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তিনি উপ-পরিদর্শক আবু সায়েম মো: আব্দুর রহমান, উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ শাহ আলম ও উপ-সহকারী পরিদর্শক মো: আয়াছ মাহমুদ ঘটনাস্থলের আক্রান্ত দুটি বাড়ি পরিদর্শণ করেছেন। বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) সন্ধ্যা পর্যন্ত কমলগঞ্জ থানায় এ ঘটনায় কোন অভিযোগ হয়নি। পরিদর্শক অরূপ কুমার চৌধুরী আরও বলেন, এ ভবনের দেয়ালের সাথেই রয়েছে অনেকগুলি সুপারি গাছ। ধারনা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা আগে থেকে পরিকল্পনা করে সুপারি গাছ বেয়ে উপরে উঠে অভিনব প্রথায় দোতলার এ দুটি বাসার রান্না ঘরের খাবারে ঘুমের ঔষধ মিশিয়েছে। পরে রাত গভীর হলে ও বাসার লোকজন গভীর ঘুমে মগ্ন থাকলে সে সুযোগে জানালাল গ্রীল ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে অর্থ, স্বর্ণালঙ্কার ও অর্থসহ মালামাল লুটে নিয়ে যায়।

কমলগঞ্জে মিরতিংগা চা বাগানে সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

saper-kamore-mrittu
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের মিরতিংগা চা বাগানে ঘুমন্ত অবস্থায়  বিষধর সাপের কামড়ে শ্রীরাম গৌড় (৫০) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। গত বুধবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাত তিনটায় মিরতিংগা চা বাগানের গৌড় টিলা শ্রমিক বস্তিতে এ ঘটনাটি ঘটে।
জানা যায়, এ  বাগানের দক্ষিণ ফাঁড়ি বাগানের গৌড় টিলা শ্রমিক বস্তির শ্রীরাম গৌড় বুধবার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত তিনটায় একটি বিষধর সাপে ঘরে প্রবেশ করে তাকে কামড় দেয়। সাপের কামড়ে তার ঘুম ভেঙ্গে গেলে কিছুক্ষণের মধ্যে তার দেহ লীলাভ হয়ে পরে তিনি মারা যান। চা শ্রমিকদের ধারনা কিং কোবরা জাতীয় সাপের কামড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।
রহিমপুর ইউনিয়নের স্থানীয় মিরতিংগা চা বাগান ওয়ার্ড সদস্য ও বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের মনু-ধলই ভ্যালির (অঞ্চলের) সভাপতি ধনা বাউরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। ধনা বাউরী মনে করেন প্রচন্ড গরমের কারণে সাপটি চা বাগানের ঝোপ ঝাড় থেকে বের হয়ে লোকালয়ে প্রবেশ করেছে।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে প্রেমিক যুগলের বিয়ে

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

Pic- 1
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারের এক ভাড়াটিয়া বাসা থেকে এলাকাবাসী প্রেমিক যুগলকে আটক করে শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আয়াছ মাহমুদের নেতৃত্বে প্রেমিক যুগলকে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। পরে উভয় পক্ষের অভিভবাবকদের ডেকে এনে প্রেমিক যুগলের বিয়ে সম্পন্ন করা হয়েছে পুলিশের সহায়তায়। গত বুধবার রাত ৮ ঘটিকার সময় ১ লাখ টাকার কাবিন নামায় এ বিয়ে সম্পন্ন করা হয় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে। প্রেমিক যুগলরা হচ্ছে- কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ৯নং ইসলামপুর ইউনিয়নের গুলের হাওর গ্রামের মৃত বারিক মিয়ার ছেলে আব্দুল রশিদ (৩৬) ও শমশেরনগর ইউনিয়নের সিংরাউলী গ্রামের ফজলু মিয়ার মেয়ে জাবেদা আক্তার (২৫)। বুধবার রাত ৮টায় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ পরিদর্শক অরুপ কুমার চৌধুরীর উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের সম্মতিতে ১ লাখ টাকা মোহরানা সাব্যস্ত করে কাজী ঢেকে বিয়ে পড়িয়ে দেওয়া হয়। এ সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের মধ্যে মিষ্টি মুখ করানো হয়।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ পরিদর্শক অরুপ কুমার চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

কমলগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ৩০০ বান্ডিল ঢেউটিন ও নগদ ৯ লক্ষ টাকা বিতরণ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
01
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সাম্প্রতিক ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ১৫০ পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে জনপ্রতি ৩০০ বান্ডিল ঢেউটিন এবং নগদ ৬ হাজার টাকা করে মোট ৯ লক্ষ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বেলা ২টায় কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রশাসন এবং দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিভাগের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।

05
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে ও পতনঊষার ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ণ মল্লিক সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, ইতিমধ্যে কমলগঞ্জ উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ৬৫০ পরিবারের মধ্যে ১৫ লক্ষ টাকার শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

কমলগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন

02

 কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
“স্বয়ং সম্পূর্ণ মাছে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৮ উদ্বোধন হয়েছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে এ উপলক্ষে উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তর এর আয়োজনে র‌্যালি, আলোচনা সভা, শ্রেষ্ঠ মৎস্যজীবিদের মধ্যে পুরষ্কার প্রদান ও উপজেলা পরিষদ পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ করা হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কমলগঞ্জ উপজেলায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮- এর শুভ উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে ও পতনঊষার ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নারায়ণ মল্লিক সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো: শাহাদাত হোসেন। এ সময় কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়।

কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

04
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের আনুষ্ঠানে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পৌরসভার ৯টি মসজিদে নগদ ২০ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বেলা ৩টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব উন্নয়ন কর্মকান্ডের শুভ উদ্বোধন করেন সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারী প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মোঃ আব্দুস শহীদ এমপি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ। এ সময় পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও মসজিদের ঈমামগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ৫৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কমলগঞ্জ পৌরসভার ভবন সম্প্রসারণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

কমলগঞ্জে এইচএসসি ফলাফল প্রকাশ : পাশের হার ৫৯.৫০% ॥ ৪৪ জন জিপিএ ৫ ॥ একটি কলেজে কেউ পাশ করেনি

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

HSC
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল বৃহস্পতিবার সারাদেশের ন্যায় একযোগে প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলার  ৫টি কলেজ থেকে মোট পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল ২১৪৭ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে পাশ করেছে ১২৭৮ জন। পাশের হার শতকরা ৫৯.৫০%। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৪ জন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস থেকে জানা যায়, এইসএসসি পরীক্ষায় কমলগঞ্জ গণ মহাবিদ্যালয় থেকে ৯৫২ জন অংশগ্রহণ করে পাশ করে ৪৪২ জন। জিপিএ ৫ পেয়েছে ১ জন। পাশের হার শতকরা ৪৬.৪৩%। সুজা মেমোরিয়াল কলেজ থেকে ৭৫৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে ৫০১ জন। পাশের হার ৬৬.৩৬%। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ জন। বিএএফ শাহীন কলেজ থেকে ১৮৮ জনের মধ্যে ১৮৮ জন পাশ করে। শতভাগ পাশের হারে মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৯ জন। অন্যদিকে হুরুন্নেচ্ছা খাতুন চৌধুরী কলেজ থেকে ১৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে কেউ পাশ করেনি।
কারিগরি শিক্ষায় কমলগঞ্জ গণ মহাবিদ্যালয় থেকে ৪৬ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে ৪৫ জন পাশ করেছে। পাশের হার ৯৭.৮৩%। জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ জন।
মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে সফাত আলী সিনিয়র মাদ্রাসা থেকে আলীম পরীক্ষা ৬৭ জন অংশগ্রহণ করে ৪৩ জন পাশ করেছে। পাশে হার ৪৬.১৮%।