সদ্য সংবাদ

বিভাগ: মুন্সীবাজার

কমলগঞ্জে অবুঝ গাছের চারাগুলোর সাথে কি এমন শত্রুতা ছিলো দূর্বৃত্তদের ?

38891269_307531103353643_7683538893014040576_n

আসহাবুর ইসলাম শাওন, কমলগঞ্জ থেকে:
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে রাতের আধারে রোপনকৃত মালিকাধীন ২ শতাধিক আকাশমনি গাছের চারা কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তের দল।ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলাধীন আলিনগর ইউনিয়নের সলিমবাজার শ্রীনাথপুর এলাকায় সাবেক ইউপি, সদস্য মোবারক আলীর বাড়ীর সড়কে । শনিবার (১১ ই আগষ্ট) দুপুরে সরজমিনে মোবারক আলীর বাড়ীতে গিয়ে তার সাথে আলাপকালে তিনি অভিযোগ করে বলেন, কিছুদিন হলো আমার বাড়ীর সামনের রাস্তা জুড়ে প্রায় ২ শতাধিক আকাশমনি ও মেহগণি প্রজাতি গাছের চারা রোপন করি ।কিন্তু গত শুক্রবার দিবাগত রাতে কে কাহারা অমার রোপনকৃত ২ শতাধিক কেটে দিয়েছে । কারো সাথে শত্রুতা রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন একই ইউনিয়নের বারামপুর গ্রামের একটি পরিবারের সাথে  জায়গা জমি নিয়ে আদালতে একটি মামলা চলমান রয়েছে,তবে এই জগন্যতম কাজটি আক্রোশ মূলক এরাই কাউকে দিয়ে করিয়েছে, নাকি তৃতীয় কেউ এই জগণ্য কাজটি করেছে দুটি পরিবারের মধ্যে শত্রুতা বাড়ানোর জন্য তা নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছিনা। তিনি কেটে ফেলা গাছের চারাগুলো তুলে দেখিয়ে বলেন, এই নিরপরাধ গাছের চারাগুলো কার কি এমন ক্ষতি করেছিলো ? চারা গুলোকে মাথা উচু করে দাঁড়ানোর সুযোগ দিলো না।রাতের আধারে নির্মম ভাবে ধ্বংস করে দিলো দুর্বৃত্তরা।  এ বিষয়ে তিনি কমলগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডাইরীর প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

সাংবাদিকদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে কমলগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

 

দেশব্যাপি সাংবাদিকদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দেশব্যাপী কর্মসুচীর অংশ হিসেবে শনিবার সকাল ১১টায় বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটির আয়োজনে উপজেলা চৌমুহনা চত্বরে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সহ সভাপতি নুরুল মোহাইমীন মিল্টনের সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক সুব্রত দেবরায় সঞ্জয়ের স ালনায় সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, গবেষক আহমদ সিরাজ, সাংবাদিক মুজিবুর রহমান রঞ্জু, আব্দুর রাজ্জাক রাজা, সাজিদুর রহমান সাজু, শাব্বির এলাহী, পিন্টু দেবনাথ, শাহীন আহমদ, মো: সানোয়ার হোসেন, এস, কে, দাস, সীতারাম বীন, কামরুল হাসান মারুফ, মো: আব্দুল মোক্তাদির, অঞ্জন প্রসাদ রায় চৌধুরী, আসহাবুর ইসলাম শাওন, নির্মল এস পলাশ, মো: মোনায়েম খান প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশে সংবাদ কর্মীরা বলেন, অবিলম্বে পেশাগত সাংবাদিকদের উপর হেলমেট বাহিনী কর্তৃক হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

কমলগঞ্জে চর্চা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের বর্ষার কবিতা পাঠের আসর অনুষ্ঠিত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

pic-1

 কমলগঞ্জে মাধবপুর লেকে চা – বাগানের মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে শুক্রবার (১০ আগষ্ট) বিকেলে চর্চা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে সংগঠনের সভাপতি সাংবাদিক নির্মল এস পলাশ এর সভাপতিত্বে ও খান মোহাম্মদ হোসেনের সঞ্চালনায় প্রকৃতির রানী বর্ষাকে কবিতায় প্রকাশের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয় বর্ষার কবিতা পাঠের আসর । চর্চা – সভাপতি তার অনুভুতি প্রকাশে বলেন চার্চা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ কমলগঞ্জে নবীব লেখক সৃষ্টি ও কবিতা লেখা ও পাঠের জন্য চর্চা করে করছে এবং কবিতার সাথে প্রকৃতির নিবিড় সম্পর্ক জন্য ভিন্ন, ভিন্ন প্রকৃতিক স্থানে কবিতা পাঠের আসর আয়োজন করে থাকেন । উক্ত কবিতা পাঠের আসরে উপস্থিত হয়ে কবিতা আবৃত্তি করেন সিলেট থেকে আগত কবি সায়েম আহমদ , মৌলবীবাজার থেকে কবি পলাশ দেবনাথ, কুলাউড়া থেকে কবি জিয়াউল হক জিয়া এছাড়াও কমলগঞ্জের কবিতা প্রেমী লেখক চার্চার সাধারণ সম্পাদক কবি রফিকুল ইসলাম জসিম, ও সাংবাদিক মুনায়েম খান, কবি খান মোঃ হোসেন, বদরুল জামান, আমিনুল ইসালাম সুমেল, ,লুৎফুর রহমান সুমু, কামরুল ইসলাম , হারুনুর রশীদ । কবি ও লেখকদের আবৃত্তিতে ফুটে উঠে বাংলার বর্ষার রূপ সুন্দর্য ।

শমশেরনগরে সুপারি চুরে করে পালাতে গিয়ে দুই ভাই ও মামা সহ আটক

 কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

8787
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারে বুধবার সকাল ১১টায় একটি মোদী দোকান থেকে সুপারি চুরি করে পালানোর সময় দুই ভাই ও মামা জনতা আটক করে। আটক চোরদের শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়িতে সোপর্দ করা হয়।
দোকানী বাবুল শেখ জানান, বুধবার হাটের দিন সকাল বেলা এক সাথে ৩ চোর দোকানে পবেশ করে। চোররা দোকানে এসেই নানান পণ্যের দাম জিজ্ঞেস করে কর্মচারীদের ব্যতিব্যস্ত করে তুলে। এক পর্যায়ে চোরচক্র বস্তা থেকে শুকনো সুপারি তাদের আলাদা থলেতে ভরে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় দোকানের কর্মচারী ও অন্য ক্রেতারা দৌড়ে সুপারিসহ তিন চোরকে ধরে পুলিশ ফাঁড়িতে সোপর্দ করে। আটক চোররা হলো, নরসিংদি জেলার রায়পুরা থানার ঘাগটিয়া গ্রামের আব্দুর রবের ছেলে রাহিম মিয়া (৩০)ও তার ছোট ভাই সোহেল মিয়া (২৮) ও একই জেলার রায়পুরা থানার দৌলতকান্দি গ্রামের মৃত আলী ভরসার ছেলে আবুল কালাম (৩০)।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) অরুপ কুমার চৌধুরী তিন চোর আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের কথাবার্তা অসংলগ্ন। তাদের পরণের জিন্সের প্যান্টের নিচে ছিল  আলাদা ভাবে থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট। তাদের আচরণে ও পরিধেয় কাপড়ে ধারণা করা হচ্ছে তারা অপরাধ জগতে সাথে যুক্ত। তাই নরসিংদির রায়পুরা থানায় বার্তা পাঠিয়ে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। রায়াপুরা থানা থেকে তথ্য পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও পরিদর্শক অরুপ কুমার চৌধুরী জানান।

কমলগঞ্জ ভ্রাম্যমান আদালতের ভেজাল বিরোধী অভিযানে জরিমানা আদায়

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

06
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারে মঙ্গলবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ২টি রেস্তোরা, একটি বেকারী ও একটি স্টেশনারী দোকানের ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন ও মাসুমা জান্নাতের নেতৃত্বে স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে নোংরা পরিবেশের কারণে মৃদুল হোটেল ও গ্রামবাংলা রেস্তোরাকে ১০ হাজার টাকা করে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কাজী ফুডস নামের বেকারীরও নোংরা পরিবেশের কারণে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাছাড়া দোকানে সুনির্দিষ্ট মূল্য তালিকা না থাকায় আজহম এন্টারপ্রাইজ নামের স্টেশনারী দোকানের ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

কমলগঞ্জে বিষমুক্ত সবজি চাষে চাষীদের উদ্দুদ্ধকরণে ৩দিনব্যাপী ক্যাম্পেইন সমাপ্ত

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

38512051_1900035496964626_518451940456136704_n
বিষমুক্ত সবজি চাষে চাষীদের উদ্বুদ্ধকরণে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ৯টি ইউনিয়নের ২৭০ জন কৃষক চাষী নিয়ে ৩দিনব্যাপী ক্যাম্পেইন মঙ্গলবার সমাপ্ত হয়েছে। কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের আয়োজনে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্পের সহায়তায় আনুষ্ঠানিকভাবে এ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়।
তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত ক্যাম্পেইনে প্রাকৃতিকভাবে জৈব সার ব্যবহার করে কিভাবে সঠিক পদ্ধতিতে সবজি চাষাবাদ করা যায় তার উপর আলোচনা করেন কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুদ্দিন আহমদসহ সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা। সাথে সাথে অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার করে সবজি উৎপাদন করলে এসব সবিজ খেয়ে মানব দেহের যে ক্ষতি সাধন হয় তার উপর আলোচনা করা হয়। চাষীরা যাতে বিষমুক্তভাবে সবজি চাষাবাদ করেন তাতে সব সময় কৃষি বিভাগ সহায়তা করবে বলেও অংশ গ্রহনকারী চাষীদের আশ্বাস প্রদান করা হয়।
মঙ্গলবার দুপুরে সমাপনী দিনে কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে আলোচনা পর্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমদ, লেখক গবেষক ও কৃষকবন্ধু আহমদ সিরাজ ও জাইকার (জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সী)-ও প্রতিনিধি সাজেদুর রহমান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, ফলে যেভাবে ফরমালিন থাকে, তেমনি ইচ্ছে মাফিক কীটনাশক ব্যবহার করায় সবজ্জিতে বিষ যুক্ত হয়। খাওয়ার প্রয়োজনে মানুষ এসব সবজির মাধ্যমে বিষ খেয়ে নানান রোগে ভোগছে। কমলগঞ্জের লেখক, গবেষক ও কৃষক বন্ধু আহমদ সিরাজের প্রস্তাবনায় কমলগঞ্জের কৃষকদের বিষমুক্ত সবজি চাষে উদ্বুদ্ধকরণেই উপজেলা পরিষদের আয়োজনে ৯টি ইউনিয়নের ২৭০ জন চাষী নিয়ে এ ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হয়। তিনি মনে করেন অংশ গ্রহনকারী এসব চাষীরাই বাকী চাষীদের গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়টি অবহিত করবে।

সমকাল সম্পাদকের রোগমুক্তির জন্য কমলগঞ্জ প্রেস কাবে দোয়া মাহফিল

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

03
সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দেশবরেণ্য সাংবাদিক দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের আশু রোগমুক্তি কামনায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ প্রেস কাবে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত সোমবার বিকেলে কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন প্রেসকাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে কমলগঞ্জ প্রেস কাবের নব নির্বাচিত কার্য্যনির্বাহী পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেসকাবের নবনির্বাচিত সভাপতি বিশ্বজিৎ রায়ের সভাপতিত্বে ও নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মো: মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমকাল প্রতিনিধি প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, আমাদের সময় প্রতিনিধি শাব্বির এলাহী, ইনকিলাব প্রতিনিধি এম, এ, ওয়াহিদ রুলু, কমলকুঁড়ি সম্পাদক পিন্টু দেবনাথ, সংবাদ প্রতিনিধি শাহীন আহমদ, ভোরের কাগজ প্রতিনিধি অলক দেব, বাংলাদেশ বেতার প্রতিনিধি রাজকুমার সৌমেন্দ্র সিংহ, সাংবাদিক সৈয়দ মোকাম্মেল আলী মুন্না, এস, এম, এবাদুল হক, শামসুর রাজা চৌধুরী, অঞ্জন প্রসাদ রায় চৌধুরী। সভা শেষে সমকাল সম্পাদক, সংবাদপত্র সম্পাদক পরিষদের সভাপতি ও পিআইবি’র চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ারের দ্রুত রোগমুক্তি কামনায় এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমকাল সুহৃদ সমাবেশের সদস্যরা দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করে।

এক কর্মচারীর যোগদানের প্রতিবাদে ও স্থানীয়দের চাকুরীতে নিয়োগের দাবিতে : কমলগঞ্জের ৩টি চা বাগানের নিবন্ধিত ১৫০০ চা শ্রমিকদের কর্মবিরতি পালন

কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

02
চা বাগানে বদলী হয়ে আসা এক কর্মচারীর যোগদান ও বাগানের শিক্ষিত বেকার শ্রমিক সন্তানদের চাকুরীতে নিয়োগ দানের দাবিতে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ইসলামপুর ইউনিয়নের ৩টি চা বাগানের ১৫০০ চা শ্রমিক কাজে যোগদান না করে মঙ্গলবার(৭ আগষ্ট) সকাল থেকে দিনভর কর্মবিরতি পালন করছে। সরকারী মালিকানাধীন ন্যাশন্যাল টি কোম্পানী (এনটিসি) এর কুরমা, বাঘাছড়া ও কুরুঞ্জী চা বাগানে এ কর্মবিরতি পালন করেন চা শ্রমিকরা।
কুরমা চা বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি নারদ পাশি, বাঘাছড়া চা বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি রাখাল গোয়ালা ও কুরুঞ্জী চা বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি শিমন্ত মুন্ডা জানান, ন্যাশনাল টি কোম্পানীর পাত্রখোলা চা বাগানের বিতর্কিত কর্মচারী (টিলা বাবু) আব্দুল কাইয়ুমকে বদলী করে কুরমা চা বাগানে নিয়োগ দেওয়া হয়। বদলী হওয়া কর্মচারী আব্দুল কাইয়ূম কুরমা চা বাগানে যোগদান করায় সাধারণ চা শ্রমিকদের মাঝে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। সাধারণ চা শ্রমিকরা বিতর্কিত এই কর্মচারীকে কুরমা চা বাগানে মেনে নিচ্ছেন না। একই সাথে কুরমা, বাঘাছড়া ও কুরঞ্জী চা বাগানের শিক্ষিত বেকার চা শ্রমিক সন্তানদের শূণ্য পদে নিয়োগ দানের দাবি জানায় চা শ্রমিকরা। এ দাবির প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সকাল ৭টা থেকে কাজে যোগদান না করেই এই তিন চা বাগানের নিবন্ধিত ১৫০০ চা শ্রমিক কর্ম বিরতি পালন করছে।

01
কুরমা চা বাগানের দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কর্মরত চা শ্রমিক বালক দাশ, সত্য নারায়ন কূর্মী, মদমোহন তেলী, বাবুল মিয়া, শ্রী দর্শন কূর্মী, ও জমশেদ আলী বলেন, এ চা বাগানে ৮টি শূণ্য পদ রয়েছে। তারা দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে দৈনিক মজুরী ভিত্তিতে কাজ করলেও এসব শূণ্য পদে তাদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে না। অথচ অন্য চা বাগানের বিতর্কিত একজন কর্মচারীকে কুরমা চা বাগানে এনে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। তাই সাধারণ চা শ্রমিকদের সাথে আলোচনাক্রমেই এক কর্মবিরতি পালন করা হচ্ছে।
কুরমা চা বাগানের প্রধান ব্যবস্থাপক মো: শফিকুর রহমান চা শ্রমিকদের কর্মবিরতির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বদলী একটি রুটিন ওয়ার্ক। কোম্পানীর নিয়মেই পাত্রখোলা চা বাগানের কর্মচারী আব্দুল কাইয়ূমকে কুরমায় বদলী করা হয়েছে। এখানে তিনি কোম্পানীর নির্দেশনা মেনেছেন। আর শূণ্য পদে নিয়োগ বা কারা নিয়োগ পাবে তা কোম্পানীর বিধি মোতাবেক উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত দিবেন। স্থানীয় ব্যবস্থাপক হিসাবে তার করার কিছু নেই বলে তিনি জানান।
মঙ্গলবার সকাল থেকে তিনটি চা বাগানের নিবদ্ধিত ১৫০০ চা শ্রমিকের কর্মবিরতি পালন সম্পর্কে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, এ ঘটনাটি তিনি জানেন না। তাছাড়া কুরমা চা বাগানের ব্যবস্থাপকও তাকে কিছু জানাননি।

কমলগঞ্জে সমবায় ভ্রাম্যমান প্রশিক্ষণ কোর্স অনুষ্ঠিত

Pic-1 (1)20180807_131820
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

সমবায় শক্তি, সমবায়ই মুক্তি এই শ্লোগানে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা সমবায় অধিদপ্তরের আয়োজনে ১দিন ব্যাপী সমবায় ভ্রাম্যমান প্রশিক্ষণ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার (৭ আগষ্ট) সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদের হলরুমে সমবায় সমিতির ২৫ সদস্যদের অংশগ্রহণে এ প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালিত হয়।

কমলগঞ্জ উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা আশুতোষ দাস এর সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণে সম্মানিত অতিথি ও প্রশিক্ষক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ সামসুদ্দিন আহমদ, উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা আসাদ উল্লাহ্, মৌলভীবাজার জেলা সমবায় কার্যালয়ের প্রশিক্ষক জবা রানী নাথ ও কমলকুঁড়ি পত্রিকার সম্পাদক পিন্টু দেবনাথ প্রমুখ।
প্রশিক্ষণে মৎস্য চাষ প্রজনন, কৃষি চাষ উৎপাদন, সমবায়ের মূলধন বৃদ্ধি ও চাহিদার ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

মৌলভীবাজারে হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা

30

মৌলভীবাজারে একটি হত্যা মামলায় তিন জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন- সদর উপজেলার আমতৈল ইউনিয়নের মাসকান্দি গ্রামের আলকাছ মিয়ার ছেলে ছানু মিয়া (৪৫), আনছার উল্লার ছেলে লুছন মিয়া (৫৫), মৃত ছাদক উল্লাহর ছেলে রুস্তোম উল্লাহ (৬৫)। সোমবার (৬ আগষ্ট) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. রফিকুল ইসলাম এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন পিপি এ এস এম আজাদুর রহমান । রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট কৃপা সিন্ধু দাশ ও আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আজিজুর রব চৌধুরী।

মামলার অভিযোগ, ১৯৯৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর সদর উপজেলার আমতৈল ইউনিয়নের মাসকান্দি গ্রামে প্রতিপক্ষের হাতে খুন হন মো. মমতাজ উল্লা। এ ঘটনার পর নিহত মমতাজ উল্লার ছেলে মুছা মিয়া বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। সে মামলায় দীর্ঘ যুক্তি তর্ক ও স্বাক্ষর গ্রহণ শেষে এ মামলার রায় প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত।